প্রচণ্ড শীত ও বৃষ্টি ও উপেক্ষা করে তাবিথের প্রচারণায় হাজার হাজার মানুষ

বুধবার, জানুয়ারি ২৯, ২০২০

ঢাকা : ভোটারগণ যাতে কেন্দ্রে গিয়ে নির্ভয়ে ভোট দিতে পারেন নির্বাচন কমিশনকে সেই পরিবেশ নিশ্চিত করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা উত্তর সিটিতে বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল। বুধবার (২৯ জানুয়ারি) বেলা ১১ টায় ১৮ নং ওয়ার্ডের নর্দ্দায় নির্বাচনী প্রচারণাকালে তিনি একথা বলেন। তাবিথ আউয়াল বলেছেন, যেভাবে ভোটারদের মধ্যে সাড়া পাচ্ছি তাতে ধানের শীষের বিজয় ঠেকানো যাবে না। বিজয়ী হওয়ার জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি আমরা নিয়েছি। আমরা ভোট কেন্দ্রে যাব, আমাদের পোলিং এজেন্টরা যাবেন, প্রার্থীরা যাবেন। ভোটের পরিবেশ নির্বাচন কমিশনকে নিশ্চিত করতে হবে।

তাবিথ বলেন, নির্বাচন কমিশন ভালোভাবেই জানে যে অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ করতে গেলে কি কি পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হয়। তাই সব পরিস্থিতিতে যেন ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট দিতে পারে তা কমিশনকেই নিশ্চিত করতে হবে। একইসঙ্গে তাবিথ আউয়াল ভোটারদেরও প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আজ বৃষ্টি ও প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেও আমি ভোটারদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছি, তাদের ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি। ভোটাররা বৃষ্টি ও শীত উপেক্ষা করে আমার কথা শুনছেন, আমাকে আশ্বস্ত করছেন।

তাবিথ আউয়াল ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, সকল অবস্থায় আপনারা প্রস্তুত থাকবেন। নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দেবেন। কোনো ভয়ের কিছু নেই। আপনারা ধানের শীষে ভোট দেবেন, আপনাদের অধিকার চর্চা করবেন। নাগরিক দায়িত্ব পালন করবেন। এরপর বারিধারা ডিওএইচএস দক্ষিণ গেইট (ইউনাইটেড হাসপাতালের পাশে), কালাচাঁদপুর নর্দ্দা এলাকায় গণসংযোগ করেন তাবিথ আউয়াল। এসময় বৃষ্টি ও প্রচণ্ড শীত উপেক্ষা করে হাজার হাজার মানুষ তার সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেন। এসময় ১৮ নম্বর ওয়ার্ডে বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী শরিফ উদ্দীন জুয়েলসহ (ব্যাডমিন্টন মার্কা) নেতাকর্মীরা সঙ্গে ছিলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তাবিথ বলেন, হামলা মামলার পরও আমরা শেষ পর্যন্ত নির্বাচনে আছি। আপনারা সরকারকে প্রশ্ন করেন। হামলা মামলা করে সরকার আমাদেরকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দিতে চাইছে। গণসংযোগে বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে রয়েছেন, ১৮ নং ওয়ার্ডে বিএনপির দায়িত্বপ্রাপ্ত দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মশিউর রহমান, হাবিবুর রহমান হাবিব, রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, প্রচার সম্পাদক শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, ক্রিড়া সম্পাদক আমিনুল ইসলাম, নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুণ রায় চৌধুরী, বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরান, এলডিপির শাহাদাত হোসেন সেলিম, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাহ উদ্দিন টুকু, ঐক্যফ্রন্টের দফতর প্রধান জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু, এস এম জাহাঙ্গীর হোসেন। এছাড়াও স্থানীয় বিএনপি ও তার অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী প্রচারণায় অংশ নেন।