আশুলিয়ায় পরিবহন চাঁদাবাজির অভিযোগে সন্ত্রাসী স্বপন ও ক্যাডারদের বিরুদ্ধে মামলা

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ২৩, ২০২০

জাহিন সিংহ, সাভার থেকে : সাভারের আশুলিয়ায় চাঁদা না পেয়ে বাসে ভাঙচুর ও পরিহন শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগে স্থানীয় সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজ স্বপন এবং তার ক্যাডার বাহিনীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

মামলায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৬/৭ জনকে আসামি করা হয়। বুধবার রাতে আশুলিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করে ভুক্তভোগী রাজু আহমেদ।

মামলার আসামিরা হলেন- আশুলিয়ার গাজিরচট এলাকার আব্দুল গণির ছেলে স্বপন (৪৫), জামগড়ার সোহেল (২৫), গোমাইলের রজব আলীর ছেলে তারেক (৪২), বাইপাইলের আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে মাজেদ (৪৩), ডেন্ডাবরের সাকিল (৩২)।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত রোববার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে স্বপনসহ অন্যান্য আসামিরা বাইপাইল ব্রিজের দক্ষিণ পাশে মৌমিতা ট্রান্সপোর্ট, সিয়াম ট্রান্সপোর্ট ও আশুলিয়া ক্লাসিকের অস্থায়ী কাউন্টারে এসে সুপারভাইজার মো.রাজু আহমেদের কাছে ১৫ লক্ষ টাকা চাঁদা বাদি করে। চাঁদার টাকা না দিলে সড়কে এই ব্যানারে পরিবহন চলতে না দেয়ার হুমকি দেয় তারা।

এসময় এর প্রতিবাদ করলে আসামিরা আশুলিয়া ক্লাসিক (ঢাকা-মেট্রো-ব-১৫-৫৭-৯১) পরিবহনের গতি রোধ করে ভাঙচুর চালিয়ে আনুমানিক ৫০ হাজার টাকার ক্ষতিসাধন করে। এ সময় রাজুসহ তার স্টাফরা বাধা দিলে তাদের এলোপাতাড়ি মারপিট করে কন্টাকটারের নিকট থেকে ১০ হাজার ৫শ টাকা নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেলিম রেজা জানান, চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার আসামীদের ধরতে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, আশুলিয়ার গাজিচট এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাসী স্বপন ও তার বাহিনীর লোকজনের চাঁদাবাজিতে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে স্থানীয় বাসিন্দা ও ব্যবসায়ীরা। তার বিরুদ্ধে মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে।