সিটি ভোটে সর্বশক্তি নিয়োগ বিএনপির

শুক্রবার, জানুয়ারি ১৭, ২০২০

ঢাকা: আসন্ন ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপির কেন্দ্রীয় ও জেলা নেতারা এখন রাজধানীতে। এসব নেতাকে দুই সিটির বিভিন্ন ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। দলটির জ্যেষ্ঠ নেতারা এসব দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাকে তদারকির দায়িত্ব দিয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার  এসব কথা জানিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সমন্বয়ক ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা এখন বলতে গেলে সবাই ঢাকায় অবস্থান করছেন। তাদের বিভিন্ন ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। বিএনপির পাশাপাশি অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতারাও পৃথকভাবে তাদের মধ্যে অর্পিত দায়িত্ব পালন করছেন।

বিএনপির ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা জানিয়েছেন, বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে ঢাকা উত্তর সিটির বিভিন্ন ওয়ার্ডে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ওয়ার্ড ভিত্তিক দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা হলেন : ওয়ার্ড-১ শাহজাদা মিয়া, ওয়ার্ড-২ অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন, ওয়ার্ড-৩ অধ্যক্ষ সোহরাব উদ্দিন, ওয়ার্ড-৪ জয়নুল আবদিন ফারুক, ওয়ার্ড-৫ অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ওয়ার্ড-৬ জয়নুল আবদিন ফারুক, ওয়ার্ড-৭ শাখাওয়াৎ হোসেন বকুল, ওয়ার্ড-৮ নজরুল ইসলাম মঞ্জু, ওয়ার্ড-৯ মাহবুবের রহমান শামীম, ওয়ার্ড-১০ গোলাম আকবর খন্দকার, ওয়ার্ড-১১ নাজিম উদ্দিন আলম, ওয়ার্ড-১২ ও ১৩ ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, ওয়ার্ড-১৪ আবুল খায়ের ভূঁইয়া, ওয়ার্ড-১৫ মেজর (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী, ওয়ার্ড-১৬ অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ওয়ার্ড-১৭ অ্যাডভোকেট আহমেদ আযম খান, ওয়ার্ড-১৮ মশিউর রহমান, ওয়ার্ড-১৯ মেজর (অব.) হাফিজউদ্দিন আহমেদ, ওয়ার্ড-২০ মিজানুর রহমান মিনু, ওয়ার্ড-২১ শামসুজ্জামান দুদু, ওয়ার্ড-২২ এবিএম মোশাররফ হোসেন, ওয়ার্ড-২৩ আবুল হোসেন খান, ওয়ার্ড-২৪ ও ২৫ ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, ওয়ার্ড-২৬ কামরুজ্জামান রতন, ওয়ার্ড-২৭ আবুল খায়ের ভূঁইয়া, ওয়ার্ড-২৮ অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, ওয়ার্ড-২৯ আতাউর রহমান ঢালী, ওয়ার্ড-৩০ শাহ মো. আবু জাফর, ওয়ার্ড-৩১ ও ৩২ অ্যাডভোকেট মুজিবর রহমান সারোয়ার, ওয়ার্ড-৩৩ ও ৩৪ আতাউর রহমান ঢালী, ওয়ার্ড-৩৫ আবুল কালাম আজাদ সিদ্দিকী, ওয়ার্ড-৩৬ রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, ওয়ার্ড-৩৭ শামসুজ্জামান দুদু, ওয়ার্ড-৩৮ সেলিম রেজা হাবিব, ওয়ার্ড-৩৯ আলী নেওয়াজ খৈয়াম, ওয়ার্ড-৪০ হেলাল খান, ওয়ার্ড-৪১ ও ৪২ শরীফুল আলম, ওয়ার্ড-৪৩ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, ওয়ার্ড-৪৪, ৪৫ ও ৪৬ শামা ওবায়েদ, ওয়ার্ড-৪৭ ডা. শাখাওয়াৎ হাসান জীবন, ওয়ার্ড-৪৮ কলিম উদ্দিন আহমেদ মিলন, ওয়ার্ড-৪৯ আব্দুল গফুর ভূঁইয়া, ওয়ার্ড-৫০ ডা. শাখাওয়াৎ হাসান জীবন, ওয়ার্ড-৫১ ও ৫২ দেওয়ান সালাহউদ্দিন বাবু, ওয়ার্ড-৫৩ হুমায়ুন কবির খান ও ৫৪ কাজী ছায়েদুল ইসলাম বাবুল।

বিএনপির ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা জানিয়েছেন, বিএনপি এবং এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের মধ্যে ঢাকা দক্ষিণ সিটির বিভিন্ন ওয়ার্ডের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। এর পাশাপাশি ঢাকা দক্ষিণ সিটির জন্য সূত্রাপুর, শাহজাহানপুর, ধানম-ি জোনে ভাগ করে কিছু নেতাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। ওয়ার্ড ও জোনের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা হলেন : ওয়ার্ড-১ আকরামুল হাসান, ওয়ার্ড-২ মাহবুবের রহমান শামীম, মশিউর রহমান বিপ্লব ও ব্যারিস্টার মীর হেলাল, ওয়ার্ড-৩ আনোয়ার হোসেন, ওয়ার্ড-৪ হায়দার আলী লেলিন, ওয়ার্ড-৫ অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম, ওয়ার্ড-৬ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, ওয়ার্ড-৭ এম এ মালেক, ওয়ার্ড-৮ হাবিবুল ইসলাম হাবিব, ওয়ার্ড-৯ শহীদ উল্লাহ তালুকদার ও আব্দুল খালেক, ওয়ার্ড-১০ শহীদ উল্লাহ তালুকদার, ওয়ার্ড-১১ রাজিব আহসান, ওয়ার্ড-১২ কাজী মফিজুর রহমান, ওয়ার্ড-১৩ অনিন্দ ইসলাম অমিত ও শহীদ উল্লাহ তালুকদার, ওয়ার্ড-১৪ শেখ রবিউল ইসলাম রবি, ওয়ার্ড-১৫ সরদার শাখাওয়াত হোসেন বকুল, ওয়ার্ড-১৬ রাশেদা বেগম হিরা, ওয়ার্ড-১৭ খালেদা ইয়াসমিন, ওয়ার্ড-১৮ মো. হারুন অর রশিদ, ওয়ার্ড-১৯ মীর সরাফত আলী সপু, ওয়ার্ড-২০ হারুন অর রশিদ, ওয়ার্ড-২১ শাম্মী আক্তার, ওয়ার্ড-২২ আব্দুল বারী ড্যানী, ওয়ার্ড-২৩ ওয়ারেস আলী মামুন, ওয়ার্ড-২৪ আসাদুল করিম শাহীন, ওয়ার্ড-২৫ খালেদা ইয়াসমিন, ওয়ার্ড-২৬ মীর নেওয়াজ আলী নেওয়াজ, ওয়ার্ড-২৭ নিলুফার চৌধুরী মনি, ওয়ার্ড-২৮ নুরজাহান মাহবুব, ওয়ার্ড-২৯ সাবেরা নাজমুন মুন্নী, ওয়ার্ড-৩০ খালেদা ইয়াসমিন, ওয়ার্ড-৩১ ডা. রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, ওয়ার্ড-৩২ লায়লা বেগম, ওয়ার্ড-৩৩ ইঞ্জিনিয়ার মো. আশরাফ উদ্দিন বকুল, ওয়ার্ড-৩৪ রফিকুল ইসলাম রাসেল, ওয়ার্ড-৩৫ অ্যাডভোকেট খন্দকার আব্দুল হামিদ ডাবলু, ওয়ার্ড-৩৬ অপর্ণা রায় দাস, ওয়ার্ড-৩৭ হাসান উদ্দিন মোল্লা ও মীর সরাফত আলী সপু, ওয়ার্ড-৩৮ কামরুজ্জামান রতন ও হামিদুর রহমান হামিদ, ওয়ার্ড-৩৯ কামরুজ্জামান ইয়াহিয়া খান মজলিস, ওয়ার্ড-৪০ তমিজ উদ্দিন, ওয়ার্ড-৪১ মোস্তাফিজুর রহমান দিপু, ওয়ার্ড-৪২ জাকির হোসেন ভূঁইয়া, ওয়ার্ড-৪৩ সিরাজুল হক, ওয়ার্ড-৪৪ খোরশেদ আলম মিয়া, ওয়ার্ড-৪৫ ফাহিমা নাসরিন মুন্নী, ওয়ার্ড-৪৬ তকদির হোসেন জসিম, ওয়ার্ড-৪৭ গৌতম চক্রবর্তী, ওয়ার্ড-৫১ মাওলানা শাহ নেছারুল হক, ওয়ার্ড-৫২ অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম, ওয়ার্ড-৫৩ আ ক ম মোজাম্মেল হক, ওয়ার্ড-৫৪ অধ্যাপক শহীদুল ইসলাম, ওয়ার্ড-৫৫ মাসুদ অরুণ, ওয়ার্ড-৫৬ আবু বক্কর সিদ্দিক, ওয়ার্ড-৫৭ দেবাশীষ রায় মধু, ওয়ার্ড-৫৮ নাজিম উদ্দিন মাস্টার, ওয়ার্ড-৫৯ কাজী রফিকুল ইসলাম, ওয়ার্ড-৬০ অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন, ওয়ার্ড-৬১ শেখ মো. শামীম ও ওয়ার্ড-৬২ এ টি এম কামাল, ওয়ার্ড-৭১ অধ্যক্ষ সেলিম ভূঁইয়া, ওয়ার্ড-৭২ অ্যাডভোকেট আসাদুজ্জামান আসাদ, ওয়ার্ড-৭৩ ইঞ্জিনিয়ার রিয়াজুল ইসলাম রিজু, ওয়ার্ড-৭৪ ও ৭৫ নাজিম উদ্দিন আলম। ওয়ার্ড-৬৩ থেকে ওয়ার্ড-৭০ পর্যন্ত জোন ভাগ করে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

শাহজাহানপুর জোনে রয়েছেন মির্জা আব্বাস, মিজানুর রহমান মিনু, ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন, খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শিরিন সুলতানা, আফরোজা আব্বাস, হাবিবুর রশীদ হাবিব ও রফিকুল আলম মজনু।

সূত্রাপুর জোনে রয়েছেন আব্দুস সালাম, নিতাই রায় চৌধুরী, আব্দুল হালিম, এ এস এম আব্দুল হাই, কবি আব্দুল হাই শিকদার, সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, ডা. শাখাওয়াৎ হোসেন জীবন, কামরুজ্জামান রতন ও কাজী আবুল বাশার।

শ্যামপুর জোনে রয়েছেন সালাহউদ্দিন আহমদ, শওকত মাহমুদ, জয়নাল আবদীন (ভিপি), রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও নজরুল ইসলাম মঞ্জু।

ধানমন্ডি জোনে রয়েছেন ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, আব্দুল মান্নান, আমান উল্লাহ আমান, আবুল খায়ের ভূঁইয়া, ড. সুকোমল বড়ুয়া, আসাদুল হাবিব দুলু, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী ও হেলেন জেরিন খান।