সাভারে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে যুবককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সোমবার, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

জাহিন সিংহ, সাভার থেকে : সাভারের অধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মাহফুজুর রহমান মাফু (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে এক ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত ছাত্রলীগনেতা সাভার পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল মন্ডল। রোববার রাতে সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডের অন্ধ কল্যাণ মার্কেটে চাঁদাবাজির অভিযোগ এনে পিটিয়ে হত্যা করা হয় ওই যুবককে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও মার্কেটের ব্যবসায়ী সূত্রে জানা যায়, সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মাহফুজুর রহমান মাফু ও সাভার পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রুবেল মন্ডলের মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। মার্কেট থেকে মাসোহারা, মার্কেটের সামনে রাস্তার পাশের দোকান ও লেগুনা স্ট্যান্ডে পরিবহন থেকে চাঁদা আদায় নিয়ে এর আগেও বিভিন্ন সময়ে দু’পক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে।

এরই জেরে বোরবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মাহফুজুর রহমান মাফুসহ তার লোকজনক অন্ধ মার্কেটে গেলে তাদের ধাওয়া করে ছাত্রলীগ নেতা রুবেল মন্ডল ও তার লোকজন। ধাওয়ারমুখে সবাই পালিয়ে গেলেও মাফুকে ধরে এনে বেধড়ক পিটুনি দেয় তারা। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে সাভারের এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খবর পেয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে সাভার মডেল থানা পুলিশ। রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশ ও ডিবি। পরের দিন মঙ্গলবার ১৩ জনসহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে সাভার মডেল থানায় নিহতের স্ত্রী একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। নিহত মাফু সাভার পৌর এলাকার শাহীবাগ মহল্লার একটি ভাড়া বাসায় পরিবার নিয়ে থাকতেন।

সাভার মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) নূর মোহাম্মদ খান বলেন, এঘটনার পর অভিযান চালিয়ে আমির হোসেন টিপু, ফরিদ হোসেন বাবু ও দেলোয়ার হোসেন দুলাল নামে ৩ আসামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে বাকী আসামীদের ব্যাপারে এ মূহুর্তে বিস্তারিত বলা যাচ্ছেনা। তবে দ্রুততম সময়ের মধ্যে হত্যাকান্ডে জড়িত সকল আসামীকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান।

এদিকে, এই হত্যাকান্ডের থেকেই পলাতক রয়েছেন ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত রুবেল মন্ডল। তার বিরুদ্ধে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ীকে নির্যাতনসহ মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। সাভারে একক অধিপত্য বিস্তার করতে গিয়ে তার বিরুদ্ধে দলীয় নেতাকর্মীকেও নির্যাতনের অভিযোগ রয়েছে।

২০১৬ সালের ডিসেম্বরে চাঁদাবাজি ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে মামলা দয়ের করেন স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা রায়হান ইসলাম রিপন। এছাড়া সাভার বাসস্ট্যান্ডের চৌরঙ্গী সুপার মার্কেটের সামনে সাভার পৌর শ্রমিকলীগের আহ্বায়ক কবির হোসেনকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগে দায়েকৃত মামলার প্রধান আসামীও রুবেল মন্ডল।

এব্যাপারে অভিযুক্ত রুবেল মন্ডলের সাথে বার বার যোগেযোগের চেষ্টা করা হলেও তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।

যোগাযোগ করা হলে সাভার পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি আতাউর রহমান অভি বলেন, রুবেল মন্ডল সাভার পৌর ছাত্রলীগের চলতি কমিটির সাধারণ সম্পাদক। তবে কোন ব্যক্তির অপকর্মের দায় কখনও ছাত্রলীগ নেবেনা।