মসজিদে মাইকিং করে গণপিটুনি, নিহত ৩

সোমবার, জানুয়ারি ১৩, ২০২০

যশোর : যশোরের অভয়নগর উপজেলায় গরুচোর সন্দেহে এলাকাবাসীর গণপিটুনিতে তিনজন নিহত হয়েছেন।

সোমবার (১৩ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার প্রেমবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে তাৎক্ষণিক নিহত তিন ব্যক্তির নাম-পরিচয় জানা যায়নি। তাঁদের বয়স ৩৫ থেকে ৪৫ বছরের মধ্যে।

এলাকাবাসী জানায়, আজ ভোররাত চারটার দিকে একটি পিকআপ ভ্যানে করে কয়েকজন সন্দেহভাজন গরুচোর যশোর সদর উপজেলার গাইদগাছি গ্রামের খোরশেদ আলীর বাড়িতে আসেন। তাঁরা খোরশেদ আলীর গোয়ালে ঢুকে তিনটি গরু চুরি করে পালাতে থাকেন। এ সময় বাড়ির মালিক টের পেয়ে চিৎকার দেন। চিৎকার শুনে এলাকাবাসী জড়ো হয়ে চোরদের ধাওয়া দেন।

এলাকার মসজিদের মাইক থেকে গরুচোরদের বিষয়ে ঘোষণা দেওয়া হয়। এলাকাবাসী প্রায় দেড় কিলোমিটার তাড়িয়ে প্রেমবাগ গ্রামের মজুমদারপাড়ার রেলক্রসিংয়ের সামনে সন্দেহভাজন গরুচোরদের ধরে ফেলেন। তাঁরা সন্দেহভাজন তিন গরুচোরকে ধরে পিটুনি দেন। এতে ঘটনাস্থলে দুইজন নিহত হন। অন্যজন অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পথে মারা যান।

অভয়নগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তাজুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ভোরে একদল সংঘবদ্ধ গরুচোর চুরি করতে গেলে এলাকাবাসী টের পেয়ে মসজিদে মাইকিং করেন। এ সময় সবাই মিলে তাদের ধাওয়া করে তিনজনকে গণপিটুনি দেয়। এতে ঘটনাস্থলে দুজন এবং আহত অবস্থায় অভয়নগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর আরেকজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতদের মরদেহ যশোর সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।’