ঈশ্বরের হাতে ভর করে আছে সেতুটি, পর্যটকদের ভিড়

শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯

ঢাকা : ভিয়েতনামের দানাং শহর। চারপাশে সবুজ ঘেরা গহীন অরণ্য, উঁচু উঁচু পাহাড়। আর সেই পাহাড়ের উপর বিশাল একটি সেতুকে নিজে হাতে ধরে রেখেছেন ‘ঈশ্বরের দুই হাত’। ১৯১৯ সালে দানাং শহরের ‘বা না হিলসে’র উপরে ফ্রান্সের একটি নির্মাতা সংস্থা অভিনব এই সেতুটি নির্মাণ করে। যেটিকে ‘সোনালী সেতু’ বা ‘গোন্ডেন ব্রিজ’ নামে ডাকা হয়।

সেতুটির ঠিক মাঝখানে গাছপালা আর পাথুরে পাহাড় ভেদ করে বেরিয়ে এসেছে কংক্রিটের দুটি প্রকাণ্ড হাত। স্থানীয়রা যাকে স্বয়ং ‘ঈশ্বরের হাত’ বলে বিশ্বাস করে। সেই দুহাতের ওপর ভর করেই টিকে রয়েছে সেতুটি।

ধনুকের মতো বাঁকানো সেতুটি নিয়ে বিশ্বজুড়ে ভ্রমণপিপাসু মানুষের কৌতুহলের শেষ নেই। ইতোমধ্যে সেতুটি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

পাহাড়-জঙ্গল থেকে ৪৯০ ফুট উঁচুতে নির্মাণ করা হয়েছে সেতুটি। সেতুটির মাঝে দাঁড়ালে চোখে পড়ে গোটা দানাং শহরটি।

সারা বছরজুড়েই ওয়েডিং ফটোগ্রাফি বা ইনস্টাগ্রাম ছবির জন্য সেখানে পর্যটকদের ভিড় লেগে থাকে। ২০১৮ সালে ‘ঈশ্বরের হাতে’ ভর করে থাকা এই সেতুটি ১৩ লাখ বিদেশি পর্যটককে ভিয়েতনাম ভ্রমণে আগ্রহী করেছিল। তবে পর্যটকদের বেশিরভাগই প্রতিবেশী দেশ চীন থেকে আসা। তার আগের বছর ২০১৭ সালে এই সেতুকে কেন্দ্র করে ভিয়েতনামে ৩৫ লাখের মতো পর্যটক পাড়ি জমিয়েছিল।

গোল্ডেন ব্রিজের পর ভিয়েতনামে এবার তৈরি হচ্ছে সিলভার ব্রিজ। সেখানে ‘হ্যান্ড অব গডের’ পরিবর্তে থাকবে ‘হেয়ার অব গড’। হাতের সঙ্গে মিল রেখে চুল তৈরি হবে, এর ভেতর দিয়ে নির্মাণ হবে নতুন সেতুটি।