নাগরিকত্ব বিলবিরোধী বিক্ষোভে গুলি, নিহত ৩

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের আসাম রাজ্যের রাজধানী গুয়াহাটিতে নাগরিকত্ব (সংশোধনী) বিল বিরোধী বিক্ষোভ মিছিলে গুলি চালিয়েছে পুলিশ।এতে কমপক্ষে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে।

আজ ১২ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশের গুলিতে এখন পর্যন্ত ৩ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।আহত হয়েছেন আরো অনেকে।নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে

গত ১১ ডিসেম্বর,বুধবার রাতে ভারতের পার্লামেন্টে বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধন বিল পাস হয়। এ বিলের প্রতিবাদে কারফিউ ভেঙে বৃহস্পতিবার রাস্তায় নেমে আসে আসামের গুয়াহাটির হাজার হাজার মানুষ।রাস্তায় বিক্ষোভ শুরু করেন তারা।এ সময় তাদেরকে দমনের জন্য পুলিশ গুলি চালায়।

এর আগে ভারত সরকার সকাল থেকেই আসামের ১০টি জেলায় ইন্টারনেট সেবা বন্ধ করে দেয়।রাজ্যটির ৪টি জেলায় মোতায়েন করা হয়েছে সেনাবাহিনী।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বিক্ষোভ এখনো চলছে।বন্ধ করে দেয়া হয়েছে আসাম এবং ত্রিপুরার মধ্যকার রেল যোগাযোগ।

উল্লেখ,ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি আসামে দ্বিতীয় সংখ্যাগরিষ্ট জনগোষ্ঠি মুসলমানদের কোনঠাসা করে নির্বাচনের মাঠে নিরঙ্কুশ কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠায় বিতর্কিত জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) করেছে।কিন্তু সেটি করতে গিয়ে ভজঘট পাকিয়ে ফেলায় সংকট থেকে উত্তরণে সাম্প্রদায়িকতার বিদ্বেষপূর্ণ নাগরিকত্ব (সংশোধনী)বিল আনে।এই বিলে বলা হয়েছে,২০১৪ সাল বা তার আগে দেশটিতে মুসলমান ছাড়া অন্য সব ধর্মের যেসব শরনার্থী এসেছে,তাদেরকে নাগরিকত্ব দেওয়া হবে।কংগ্রেসসহ প্রায় সব বিরোধী দল এই বিলটি তীব্র সমালোচনায় মুখর হয়েছে।এরই মধ্যে আসাম ও ত্রিপুরা রাজ্যের বেশ কয়েকটি আদিবাসী সংগঠন বিলটি বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করে। ক্ষমতাসীন সরকার নৃসংশভাবে এদের উপর চড়াও হয়।