মিয়ানমার বসনিয়ার চেয়েও জঘন্য কাজ করেছে: পল এস রাইখলার

বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) রোহিঙ্গা গণহত্যা নিয়ে গাম্বিয়ার করা মামলায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে শুনানি চলছে। জাতিসংঘের বিভিন্ন তদন্ত ও প্রতিবেদনের তথ্য তুলে ধরে যুক্তরাষ্ট্রের সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী পল এস রাইখলার বলেন, বসনিয়ায় গণহত্যার ক্ষেত্রে যতটুকু তথ্যের ভিত্তিতে আদালত অন্তর্বর্তী পদক্ষেপের নির্দেশনা দিয়েছিলেন, মিয়ানমারের ক্ষেত্রে তা আরও খারাপ। সেখানে আদালতের কেন মিয়ানমারের বিরুদ্ধে অন্তর্বর্তী পদক্ষেপের নির্দেশনা দেওয়া উচিত, সে বিষয়ে মঙ্গলবার গাম্বিয়ার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরেন।

শুনানিতে মিয়ানমারের বিভিন্নস্থানে অং সান সু চির সঙ্গে তিন জেনারেলের হাস্যোজ্জ্বল ছবিসংবলিত পোস্টারের ছবি দেখিয়ে রাইখলার বলেন, এই প্রচারণার উদ্দেশ্য ছিল রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সেনাবাহিনী ও সু চির অর্জন দেখানো। তিনি মিয়ানমারের তদন্তকে লোক দেখানো মন্তব্য করে বলেন, এই তদন্তের লক্ষ্য ছিল গণহত্যাকে অস্বীকার করা।

রোহিঙ্গাদের নিরাপত্তা প্রদান ও মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গণহত্যার অভিযোগে নেদারল্যান্ডেসের দ্য হেগে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) বাংলাদেশ সময় বেলা তিনটায় বিচারের শুনানি শুরু হয়। মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা বন্ধে অন্তর্বর্তীকালীন নির্দেশনা চেয়ে মামলাটি করে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। এদিন অভিযোগকারী গাম্বিয়া তাদের বক্তব্য তুলে ধরে। আদালতের কার্যক্রম গতকালের জন্য মুলতবি করা হয়েছে। বুধবার মিয়ানমার তাদের বক্তব্য তুলে ধরবে। এদিকে একই শহরে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ তদন্তাধীন। রোহিঙ্গাদের ওপর গণহত্যা চালিয়ে মিয়ানমার বৈশ্বিক সনদ লঙ্ঘন করেছে কি না, তা বিচারেই আইসিজের এই শুনানি।

রাইখলার বলেন, গণহত্যা সনদে মিয়ানমারের যেসব দায়িত্ব আছে, সেগুলো দেশটি পূরণ করছে না বলেই, গাম্বিয়া আদালতের কাছে সেগুলো যাতে মিয়ানমার পালন করে সেই নির্দেশ দাবি করছে।