নিউজিল্যান্ডে আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণে ১৩ জনের মৃত্যুর শঙ্কা

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নিউজিল্যান্ডের জনপ্রিয় পর্যটন দ্বীপ হোয়াক আইল্যান্ডে আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণে ১৩ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) জাসিন্ডা আরডার্ন এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, ৫ জনের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন প্রতিরক্ষা বাহিনী। এছাড়া হোয়াক আইল্যান্ড নামে পরিচিত ওয়াখারিতে সোমবার বিস্ফোরণের পরে এখনও ৮ জন নিখোঁজ রয়েছেন। বিমানের মাধ্যমে পুনরুদ্ধারের পরও নিখোঁজদের জীবন্ত পাওয়ার আশা খুবই কম।

তিনি জানান, আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণের সময় ওই দ্বীপে যারা ছিলেন তাদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, চীন এবং মালয়েশিয়ার পর্যাটকদের পাশাপাশি নিউজিল্যান্ডের গাইডও ছিলেন।

যারা পরিবার, বন্ধুবান্ধব ও প্রিয়জন হারিয়েছেন বা নিখোঁজ রয়েছেন তাদের জন্য আমরা আপনাদের আবেগ, দুঃখ ভাগ করে নিচ্ছি এবং গভীর শোক প্রকাশ করছি, বলছিলেন প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন।

আগ্নেয়গিরি বিস্ফোরণে ১৩ অস্ট্রেলিয়ানসহ মোট ৩১ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন, তাদের মধ্যে কয়েকজন গুরুতর হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়েছেন।

পুলিশের মুখপাত্র ব্রুস বার্ড বলেছেন, বিষাক্ত গ্যাস, ছাই ওড়ার কারণে সেখানে যেয়ে উদ্ধারের চেষ্টা চালানো যাচ্ছেনা। আমরা তখনই দ্বীপে যাব, যখন সেখানে যাওয়া নিরাপদ হবে।

তিনি বলছিলেন, একটি হেলিকপ্টার ৪৫ মিনিট পরীক্ষা করে দেখেছে কেউ বেঁচে আছে কি-না। কিন্তু কোন সফলতা ছাড়াই হেলিকপ্টরটি ফিরে এসেছে।

সোমবার বেলা ২টার পরে আগ্নেয়গিরিতে বিস্ফোরণ ঘটেছিল, এই দ্বীপটি নিউজিল্যান্ডের উত্তর দ্বীপের প্রায় ৫০ কিলোমিটার (৩০ মাইল) উপসাগরীয় অঞ্চলে এবং প্রতি বছর ১ লাখেরও বেশি দর্শনার্থী এই দ্বীপে আগমন করে।