চার বছর নিষিদ্ধ রাশিয়া

সোমবার, ডিসেম্বর ৯, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : আন্তর্জাতিক ইভেন্টের সব ধরনের খেলাধুলা থেকে রাশিয়াকে চার বছরের নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সি (ডব্লিউএডিএ)। যাতে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক এবং ২০২২ সালের কাতার ফুটবল বিশ্বকাপে অংশ নিতে পারবে না গত ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজক দেশটি।

আজ সোমবার (৯ ডিসেম্বর) সুইজারল্যান্ডের লুসানেনে ওয়ার্ল্ড অ্যান্টি ডোপিং এজেন্সির কার্যনির্বাহীর বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

গত বিশ্বকাপে বেশ চাচকিক্যময় আয়োজনের পাশাপাশি যে রাশিয়ানদের ফুটবলও মুগ্ধ করেছে অনেককে। সেই দলটিরই কিনা খেলা হচ্ছে না আগামী বিশ্বকাপ। ভাবতেই অবাক লাগে।

চলতি বছরের জানুয়ারিতে হওয়া তদন্তে ডোপিংয়ের নমুনা নিয়ে কারসাজির অভিযোগ ওঠে রাশিয়ার বিপক্ষে। তখন বলা হয়েছিল, অভিযোগ প্রমাণিত হলে বড় শাস্তিই জুটবে রাশিয়ানদের কপালে। শেষমেষ হলোও তাই।

তবে দেশটির যেসব অ্যাথলেট নিজেদেরকে ডোপিং কেলেঙ্কারি থেকে মুক্ত প্রমাণ করতে পারবেন, তারা স্বতন্ত্রভাবে নিরপেক্ষ পতাকা নিয়ে অলিম্পিকে অংশ নিতে পারবেন।

অন্যদিকে, এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আগামী ২১ দিনের মধ্যে আপিল করার সুযোগ পাচ্ছে রাশিয়া।

এর আগে সাংগঠনিকভাবে পারফরম্যান্স বর্ধক ওষুধ ব্যবহারে অনুপ্রেরণা দেয়া ও নমুনা নিয়ে কারসাজির কারণে ২০১৬ সালের রিও অলিম্পিকে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছিল রাশিয়ার অ্যাথলেটিকস দলের ওপর। সূত্র- দ্য গার্ডিয়ান।