খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে রাজধানীর থানায় থানায় বিএনপির বিক্ষোভ

রবিবার, ডিসেম্বর ৮, ২০১৯

ঢাকা : বিএনপির চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার এবং নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে রাজধানীর থানায় থানায় বিক্ষোভ মিছিল করেছে ঢাকা মহানগর বিএনপি।

কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর অংশ হিসাবে আজ ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র উদ্যোগে ঢাকা মহনগর দক্ষিণ বিএনপি’র সকল থানায় থানায় বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। পুলিশী বাধার মধ্যে ও বিভিন্ন থানার নেতৃবৃন্দ স্বর্তঃস্ফুর্তভাবে এই কর্মসূচী সফল করেন। কর্মসূচী চলাকালে বিভিন্ন স্থানে থেকে হামলা চালিয়ে শাহবাগ থানা বিএনপি’র নেতা মোঃ রফিক, মোঃ আসিফ, মইন, হৃদয়সহ পাঁচজন, মোঃ লিমন, রহিমসহ পুলিশ ১০/১২ জনকে গ্রেফতার করে এবং পুলিশী হামলায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ ১২/১৩ জন আহত হন।

শাহবাগ থানা: শাহবাগ থানা বিএনপি’র উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল শাহবাগ থানা বিএনপি’র নেতা মোঃ জাহিদ হোসেন নোওয়াব এবং রফিকুল ইসলাম স্বপনের নেতৃত্বে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের সামনে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে অমর একুশে হলের সামনে গেলে পুলিশ হামলা চালিয়ে আঃ রশিদ, সুমন, শাকিল, সুজন ৮/১০ কে আহত করে এবং মোঃ রফিক নামে একজনকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ মোরশেদ, তৌহিদুল ইসলাম বাবু, হযরত আলীসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

চকবাজার থানা: চকবাজার থানা বিএনপি’র উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল চকবাজার থানা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ শহিদুল ইসলাম বাবুল এর নেতৃত্বে উর্দু রোড থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নুরফাতে লেন হয়ে লালবাগ চৌরাস্তা গিয়ে শেষ হয়। মিছিল চলাকালে পুলিশ হামলা চালিয়ে মোঃ আসিফ, মইন, হৃদয়সহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করে। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোঃ সালেন, চকবাজার থানা বিএনপি’র ২৯ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি হাজী আঃ সামাদ, ২৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি হাজী কুতুবউদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক হাজী মনির হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ারুল হক রনি, মোঃ লাখী, মোঃ সজিব, মোঃ নাজিম উদ্দিন নাজু প্রমুখ।

কোতয়ালী থানা: কোতয়ালী থানা বিএনপি’র উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল কোতয়ালী থানা বিএনপি সভাপতি হায়দার আলী বাবলা ও সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুর আজিম এর নেতৃত্বে বাবু বাজার ব্রিজ সামনে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ইসলামপুর সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে পুলিশ হামলা চালিয়ে মোঃ লিমন ও রহিম নামে দুই জনকে গ্রেফতার করে। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র সহ-সাধারন সম্পাদক হাজী নাজিম, মোঃ রিয়াজ, ফরহাদ রানা, সুমন ভুইয়া, নান্টু, কামাল হোসেন প্রমুখ।

কদমতলী থানা: তিন বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), কদমতলী থানা এর উদ্যোগে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বিক্ষোভ মিছিলের নের্তৃত্ব দেন ঢাকা মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি, কদমতলী থানার সংগ্রামী সভাপতি হাজী মীর হোসেন মীরু। মিছিলটি জুরাইন রেল গেইট হইতে দোলাইরপাড় বাসষ্ট্যান্ডে এসে শেষ হয়। উক্ত বিক্ষোভ মিছিলে আরো উপস্থিত ছিলেন কদমতলী থানার বিপ্লবী সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ জুম্মন চেয়ারম্যান, কদমতলী থানা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ বাদল রানা, মোঃ সেলিম রেজা, আলমগীর খান লিপু, স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রিয় কমিটির সাবেক সদস্য তরিকুল ইসলাম পলাশ, আনোয়ার হোসেন স্বপন, কদমতলী থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি-মাহাবুব আলম, সাধারন সম্পাদক-মোঃ নাসির মাহমুদ, কদমতলী থানা শ্রমিক দলের সভাপতি মোঃ মুজাহিদ মিয়া, শ্রমিক দল নেতা মোঃ পাপন, কদমতলী থানা যুবদলের নেতা শহীদুর রহমান শহীদ, ছাত্রদল নেতা-আনোয়ার হোসেন, কৃষক দল কদমতলী থানার সাধারণ সম্পাদক মোঃ আল-আমিন, সাংগঠনিক সম্পাদক-মোঃ সোহেল, কদমতলী থানা ওলামা দলের সভাপতি-মোহাম্মদ আলী বিএনপি নেতা-মোঃ রতন মাহমুদ, কাজী মোঃ জসীম উদ্দিন, কামরুল ইসলাম, হাজী আজিজ খান ইমন, হাজী মোঃ জুয়েল, মোঃ লিটন, মোঃ শিমুল, মোঃ এরশাদ, মোঃ জাহিদ,। শমিক দল নেতা-মোঃ হারুন মোল্লা, মোঃ শিমুল, মোঃ মুসলিম, মোঃ জুয়েল, মোঃ সুমন, কৃষক দল ৫৩ নং ওয়ার্ডের সভাপতি- মোঃ ইসমাইল, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা-মোঃ মহসিন, মোঃ মাসুদ, মুনসুর শাহীন, মোঃ সুমন, মোঃ রাজন, মোঃ নিজাম হাওলাদার, মোঃ সাদ্দাম, মোঃ সায়েম, মোঃ মুকবুল, আমিনুল, মোঃ জনি প্রমুখ।

কদমতলী থানা কদমতলী থানা এর উদ্যোগে আরও একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। রবিউল ইসলাম দিপুর নেতৃত্বে জুরাইন রেল গেট থেকে শুরু হয়ে ধোলাইপাড় মোড়ে এসে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আনিুসুর রহমান আনিস, মোঃ ফারুকসহ অসংখ্য নেতৃবৃন্দ।

শ্যামপুর থানা: শ্যামপুর থানার বিএনপির সভাপতি আনম সাইফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক আলিমুল আল বারী জুয়েল এর নেতৃত্বে একটি বিক্ষেভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি ধোলাপাড় বাসস্ট্যান্ড নতুন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মীরহাজারীবাগ চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। উক্ত মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা ইমতিয়াজ আহমেদ টিপু, আঃ মান্নান, সালাউদ্দিন রতন, শফিকুল, শামীম আহমেদ, নাসির মোল্লা, মোঃ রাশেদ খানসহ শ্যামপুর থানা বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল, এবং স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা কর্মীরা।

শ্যামপুর থানার বিএনপির অপর একটি মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি পোস্তগোলা ব্রিজ থেকে শুরু হয়ে জুরাইন রেলগেইট গিয়ে শেষ হয়। উক্ত মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনি সম্পাদক শাহ আলম মোল্লা, জাকির মেম্বারসহ অসংখ্য নেতৃবৃন্দ।

যাত্রাবাড়ী থানা: সাবেক প্রধান মন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি), যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপি’র উদ্যোগে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত বিক্ষোভ মিছিলের ঢাকা মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ও যাত্রাবাড়ী থানার সভাপতি আলহ্জ্জ নবীউল্লাহ নবী নেতৃত্বে শহীদ ফারুক রোড থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ কলে যাত্রাবাড়ী চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন যাত্রাবাড়ী থানা বিএনপি’র অসংখ্য নেতাকর্মরা উপস্তিত ছিলেন।

নিউমার্কেট থানা: নিউমার্কেট থানা বিএনপি’র উদ্যোগে এক বিশাল বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি’র সভাপতি এড. মকবুল হোসেন সরদার নেতৃত্বে বাটা সিগনাল মোড় থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে নিউমার্কেট ওভার ব্রিজের সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন নিউমার্কেট থানা বিএনপি’র অসংখ্য নেতাকর্মী। এছাড়া ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবকদল এতে উপস্থিত ছিলেন।

কামরাঙ্গীর চর : কামরাঙ্গীরচর থানা বিএনপির একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মোঃ নাইম এর নেতৃত্বে নুরবাগ বেড়ীবাঁধ থেকে শুরু হয়ে প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে মাদ্রাসা রোডে গিয়ে শেষ হয় অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে অন্যান্যের মধ্যে অংশ নেন বিএনপি’র নেতা হাজী জহিরুল, আঃ আজিজ, সিরাজুল ইসলাম, মোঃ শামীম, মোঃ দুলাল প্রমুখ।

ডেমরা থানা : ডেমরা থানা একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি এবং ডেমরা থানা বিএনপি’র সভাপতি জয়নাল আবেদিন রতন চেয়ারম্যান এবং আবুল হাশেম এর নেতৃত্বে ডেমরা থানা রামপুরা রোডে আমুলিয়া মাইক্রোবাস কাউন্টার হইতে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে ডেমরা আতিক মার্কেটে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর বিএনপি’র সহ-সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন নান্টু, শওকত আকবর, মোঃ মাসুম, মোঃ মাহাফুজুর রহমানসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

খিলগাঁও থানা: খিলগাঁও থানার বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষেভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি সহ-সভপতি ইউনুস মৃধার নেতৃত্বে পল্লীমা সংসদ থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে খিলগাঁও চৌরাস্তায় গিয়ে শেষ হয়। উক্ত মিছিলে উপস্থিত ছিলেন থানা বিএনপি’র অসংখ্য নেতৃবৃন্দ।

রমনা থানা: রমনা থানার একটি বিক্ষোভ মিছিল ১৯ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি আব্দুল মোতালেব রুবেল ও সাধারণ সম্পাদক হুমায়ন কবির এর নেতৃত্বে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি মোৗচাক মার্কেটের সামনে থেকে শুরু হয়ে মালিবাগ রেলগেইট গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে অংশ নেন থানা বিএনপি’র নেতৃবৃন্দসহ অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

মতিঝিল থানা : মতিঝিল থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল থানা বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আক্তার হোসেন এর নেতৃত্বে ফকিরাপুল কালভার্ট রোর্ড থেকে শুরু হয়ে ফকিরাপুল বাজারে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা হাজী সোলেমান আলী, এম মাহাবুব, নুরুল আলম মজিদ, মোঃ আসিফ, মোঃ মনির, মোঃ জাহিদ, মোঃ কোরায়েশী এবং রুবেল প্রমুখ।

গেন্ডারিয়া থানা : গেন্ডারিয়া থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি’র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি’র সভাপতি কাউন্সিরার মকবুল হোসেন টিপু ও গেন্ডারিয়া থানা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলার আঃ কাদির এর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলটি দয়াগঞ্জ মোড় থেকে শরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ কওে সাহ সাহেব বাড়ীর সামনে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা মোঃ আঃ হাকিম, মোঃ রবিন, মোঃ নুর হোসেন প্রমুখ।

বংশাল থানা: বংশাল থানা বিএনপির উদ্যোগে একটি বিক্ষোভ মিছিল সাধারণ সম্পাদক মামুন আহমেদ এর নেতৃত্বে সিদ্দিক বাজার থেখে শুরু হয়ে বংশাল রোড প্রদক্ষিণ করে নাজিরা বাজওে গিয়ে শেষ হয়। মিছিলে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা আঃ রহমান, মাহাবুব, মোঃ ডালিম, মোঃ রাসেলসহ অংঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

এ ছাড়াও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির লালবাগ, শাহজাহানপুর, মুগদা, কলাবাগান, ধানমন্ডি, পল্টন, সবুজবাগ, ওয়ারী ও সূত্রাপুর থানার নেতৃবৃন্দ বিক্ষোভ মিছিল করে।