ফের তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্র

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আফগানিস্তানে মার্কিন মধ্যস্থতাকারী আবারও তালেবানের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি নিয়ে আলোচনা শুরু করবেন বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা। তিন মাস আগেই ট্রাম্প কূটনৈতিক তৎপড়তা বন্ধের ঘোষণা দিলেও আবার আলোচনা শুরু হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

দীর্ঘ ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানের লক্ষ্যে এই বছরে সেপ্টেম্বরে উভয় পক্ষের একটি চুক্তির আলোচনার দ্বারপ্রান্তে পৌঁছানোর পর তা বাতিল করে দেয় ট্রাম্প। তবে সম্প্রতি দুই পক্ষের বন্দি বিনিময়ের পর চুক্তি নিয়ে নতুন করে আশা দেখা দেয়। সিনিয়র তালেবান কমান্ডাররা জানিয়েছেন, গত সপ্তাহে কাতারে মার্কিন আলোচকদের সঙ্গে তাদের সিরিজ বৈঠক শুরু হয়েছে।

মার্কিন মধ্যস্থতাকারী জালমায় খালিজাদ আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির সঙ্গে দেখা করতে কাবুল পৌঁছেছেন। পররাষ্ট্র দফতর জানায়, সেখান থেকে তিনি কাতারে গিয়ে তালেবান নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন।

সম্প্রতি আশরাফ ঘনির আহ্বানের পর মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরও যুদ্ধবিরতির পক্ষে কথা বলেন। তবে তালেবান সবসময়ই এই প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে আসছে। এক বিবৃতিতে পররাষ্ট্র দফতর থেকে জানানো হয়, রাষ্ট্রদূত খালিজান যুদ্ধের শান্তিপূর্ন সমাধান খুঁজতে মধ্যস্থতা।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কের ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারে সন্ত্রাসী হামলার পর থেকে আফগানিস্তানে ১৩ হাজার মার্কিন সেনা অবস্থান করছে। তালেবান চায়, দেশটি থেকে মার্কন সেনাদের প্রত্যাহার করা হোক। আর যুক্তরাষ্ট্র চায়, সেখানে তাদরে সেনা ও মিত্রদের নিরাপত্তা। তবে আফগান সরকারকে মার্কিন পুতুল আখ্যায়িত করে তাদের সঙ্গে আলোচনায় বরাবরই অস্বীকৃতি জানিয়ে আসেছে তালেবান।