বাংলাদেশকে প্রথম সোনা এনে দিলেন দিপু

সোমবার, ডিসেম্বর ২, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : অবশেষে অপেক্ষার অবসান ঘটলো। সোনা এলো বাংলাদেশের ঘরে। আর সেই অপেক্ষার যবনিকা ঘটালেন রাঙ্গামাটির ছেলে দিপু চাকমা। নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে অনুষ্ঠিতব্য দক্ষিণ এশিয়ান গেমসের (এসএ গেমস) দ্বিতীয় দিনেই তায়কোয়ানদোতে দেশকে প্রথমবারের মতো সোনা এনে দিলেন দিপু চাকমা। দিপুর সোনা জয়ে বেজে উঠলো জাতীয় সংগীত- ‘আমার সোনার বাংলা, আমি তোমায় ভালোবাসি’। মধ্যগগনে পত পত করে উড়তে লাগলো গর্ব আর অহংকারের লালা-সবুজের পতাকা।

সোমবার (২ ডিসেম্বর) দিনের শুরুতেই ছেলেদের একক পুমসায় ঊর্ধ্ব ২৯ শ্রেণিতে ভারতের প্রতিযোগীকে হারিয়ে সোনা জয় করেন দিপু। তার স্কোর ছিল ১৬.২৪। এই সোনা জয়ের জন্য দিপুকে এক এক করে হারাতে হয় শ্রীলঙ্কা, ভারত, পাকিস্তান ও নেপালের প্রতিযোগীদের।

প্রথমবার অংশ নিয়ে দেশকে প্রথমবার সোনা এনে দেয়ার অনুভূতিটা নিশ্চিতভাবেই অন্যরকম। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় দিপু বলেন- ‘খুবই ভালো লাগছে। ঘোরের মধ্যে আছি। বাংলাদেশকে প্রথম সোনা উপহার দিতে পেরে আমি গর্বিত। ১৯ বছর অনুশীলন করে এই সোনার দেখা পেলাম। আরও একটি ইভেন্টে অংশ নেবো। আশা করি, ভালো কিছুই হবে।’

এসএ গেমসের বাইরে ক্যারিয়ারে আরও ৫টি সোনা ও ১টি আন্তর্জাতিক রৌপ্য জয় করেছেন দিপু।

এসএ গেমসে এর আগে তিনবার ব্রোঞ্জ জিতেছিল বাংলাদেশ। সোনার দেখা পায়নি কখনোই। এখন বাংলাদেশের পদকের সংখ্যা ৪টি।

এদিকে দিপু চাকমার সোনা জয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বাংরাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা দিপুকে ‍পুরস্কৃত করার ঘোষণা দিয়েছেন।

বাংলাদেশ তায়কোয়ানদো ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল ইসলাম রানা বলেন, ‘এবার এসএ গেমসে দুটি সোনা প্রত্যাশা ছিল। দ্বিতীয় দিনেই এলো প্রথম সোনা। খুবই ভালো লাগছে। দিপু প্রত্যাশা পূরণ করেছে।’

২০০১ সাল থেকে তায়কোয়ান্দোতে খেলছেন সেনাবাহিনীতে চাকরি করা দিপু চাকমা। সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েই বড় ভাইয়ের উৎসাহে তায়কোয়ান্দোর প্রতি দিপুর ভালোবাসা শুরু হয়।