নৈরাজ্য করলে পাড়ায়-মহল্লায় প্রতিরোধ: বিএনপিকে নাসিম

সোমবার, ডিসেম্বর ২, ২০১৯

ঢাকা : হুমকি না দিয়ে বড় আইনজীবী নিয়োগ করে আইনি লড়াইয়ের মধ্য দিয়ে বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে বিএনপিকে পরামর্শ দিয়েছেন ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম।

আজ সোমবার দুপুরে রাজধানীর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে ঢাকার সাবেক মেয়র মো. হানিফের ১৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় নাসিম অভিযোগ করেন, প্রতিনিয়ত মিথ্যাচার এবং সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি। দলটির নেতাদের সাম্প্রতিক বক্তব্যের সমালোচনা করে নাসিম বলেন, সুপ্রিম কোর্টের বিরুদ্ধে হুমকি দিচ্ছে বিএনপি। পাশাপাশি তিনি বলেন, আদালতের রায়ে হস্তক্ষেপ করে না সরকার। তবে, আন্দোলনের নামে বিএনপি রাজপথে নেমে নৈরাজ্য ও সহিংসতার ষড়যন্ত্র করলে রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করবে ১৪ দল।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপি হুমকি দেয় একদফা আন্দোলন করবে, সুপ্রিম কোর্টের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে। তারা ঘোষণা দিয়ে বলেছেন, ৫ তারিখের রায় যদি উলটাপালটা হয় একদফা আন্দোলন করবে। দেখেন, কত বড় নির্লজ্জ ব্যাপার সুপ্রিম কোর্টের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে যদি রায় তাদের পক্ষে না যায়। রায় কি হবে না হবে সেটা তো সুপ্রিম কোর্ট জানে। তারা কীভাবে বললেন, ৫ তারিখে আমরা আন্দোলনে নামব একদফা আন্দোলন করব।’

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেন, ‘গত ১৫ বছর ধরে তারা আন্দোলন করে আসছে। বিএনপির যারা হুংকার দেয় তাদের স্মরণ করিয়ে দিতে চাই, এ হুংকার দিয়ে কোনো লাভ হবে না। আইন আইনের মতো চলবে। আদালত যে রায় দিবেন বেগম জিয়ার বিরুদ্ধে, এ ব্যাপারে আপনাদের কোনো কথা নাই, কোনো হস্তক্ষেপ নাই, তিনি মুক্তি পাবেন কি পাবেন না; সেটা সুপ্রিম কোর্ট বিচার করবেন। আমাদের তো বলার কিছু নাই, আমরা হস্তক্ষেপ করি নাই কখনো।’

‘কতবার বিচারের বাণী কেঁদে গেছে নীরবে, ওই বিএনপি-জামায়াতের সময় ভুলে গেছেন আপনারা, নিজেরা পর্যন্ত ৩ নভেম্বর হত্যার বিচারে পর্যন্ত হস্তক্ষেপ করেছেন, আইনের হস্তক্ষেপ করেছেন দলের পক্ষ থেকে। বহু হত্যার বিচারের জন্য যুগের পর যুগ দিনের পর দিন মামলার রায় না দিয়ে ঝুলিয়ে রেখেছেন। আর এখন হুংকার দিচ্ছেন তো। হুংকার দেওয়া এখন অভ্যাসে পরিণত হয়ে গেছে, প্রতিদিনই হুংকার দেন। আর ঘরে বসে হুংকার দেন, কখনো দেখলাম না সাহস করে মাঠে এসে কিছু করেছেন। অথচ আমরা সেই দুঃসময়ের সময় রাতভর লড়াই করে আন্দোলন করেছিলাম। আওয়ামী লীগের ইতিহাস হচ্ছে

আন্দোলন-সংগ্রামের ইতিহাস। আর আপনাদের হুংকার হচ্ছে প্রেসক্লাবের চত্বরের মধ্যে আর ঘরে বসে।’ হুঁশিয়ার করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘যদি কোনো নৈরাজ্য সৃষ্টি করার চেষ্টা করেন, মনে রাখবেন ১৪ দলকে নিয়ে, আওয়ামী লীগকে নিয়ে, মাঠে-ময়দানে পাড়া-মহল্লায় প্রতিরোধ গড়ে তুলব আমরা। কাজেই চক্রান্ত করে লাভ হবে না। তাই বলি আইনের পক্ষে থাকেন, বড় আইনজীবী নিয়োগ করে খালেদা জিয়ার মুক্তির জন্য চেষ্টা করেন।

আইনের পথে থাকেন। পার্লামেন্টে গেছেন, সেখানে যত কথা বলার বলেন। কিন্তু জ্বালাও-পোড়াও আবার করবেন, নৈরাজ্য করবেন, হুমকি দিবেন, এ হুমকিতে কোনো কাজ হবে না। ফাঁকা মাঠে ফাঁকা আওয়াজ তুলে কোনো লাভ হবে না।’ এ সময় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে নাসিম বলেন, তাই বলছি কোনো অশুভ শক্তি যদি মাথাচারা দিতে চায় আপনারা মাঠে থেকে প্রতিহত করবেন।