আজ পর্দা উঠছে এসএ গেমসের

রবিবার, ডিসেম্বর ১, ২০১৯

নিউজ ডেস্ক: দক্ষিণ এশিয়ার অলিম্পিকখ্যাত আসন্ন সাউথ এশিয়ান গেমসে (এসএ) ৬২১ সদস্যের শক্তিশালী বহর পাঠিয়েছে বাংলাদেশ। আজ থেকে শুরু হতে যাওয়া এই গেমস ১০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নেপালের কাঠমান্ডু ও পোখরায় অনুষ্ঠিত হবে। আসন্ন এই গেমসে ২৫টি ডিসিপ্লিনে অংশ নেবেন বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদরা।
ডিসিপ্লিনগুলো হচ্ছে—আরচারি, অ্যাথলেটিকস, ব্যাডমিন্টন, বাস্কেটবল, বক্সিং, সাইক্লিং, ফেন্সিং, ফুটবল, গলফ, ক্রিকেট, হ্যান্ডবল, জুডো, কাবাডি, কারাতে, খো খো, শুটিং, স্কোয়াশ, সাঁতার, টেবিল টেনিস, তায়কোয়ান্দো, টেনিস, ভলিবল, ভারোত্তোলন, কুস্তি ও উশু।
৬২১ সদস্যের বাংলাদেশ দলের মধ্যে ৫৯৫ অ্যাথলেট রয়েছেন। তাঁদের মধ্যে ২৬৩ জন পুরুষ ও ১৯৯ নারী। এ ছাড়া রয়েছেন কোচ, সেফ দ্য মিশন, ডেপুটি সেফ দ্য মিশন, ম্যানেজার, ডাক্তার ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা।
সেফ দ্য মিশন হিসেবে বাংলাদেশ দলের নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) উপমহাসচিব এবং হ্যান্ডবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান কোহিনুর। ডেপুটি সেফ দ্য মিশনের দায়িত্ব পালন করবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও বিওএর সদস্য মো. ওমর ফারুক ও বাংলাদেশ জুডো ফেডারেশনের সিনিয়র সহসভাপতি সৈয়দ জান্নাত আরা।
উদ্বোধনী দিনে মার্চপাস্টে বাংলাদেশ দলের পতাকা বহন করবেন গত এসএ গেমসে দুটি স্বর্ণপদকজয়ী সাঁতারু মাহফুজা খাতুন শিলা।
গেমসে আরচারি, শুটিং ও ফুটবলে বাংলাদেশ দলের ভালো সম্ভাবনা রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন বিওএ মহাসচিব।
ভারতের গুয়াহাটিতে গত এসএ গেমসে ৭১৮ জনের দল পাঠিয়ে ছিল বাংলাদেশ। আট জাতির ওই আসরে চারটি স্বর্ণ, ১৫টি রুপা ও ৫৬টি ব্রোঞ্জসহ মোট ৭৫টি পদক নিয়ে পঞ্চম হয়েছিল বাংলাদেশ।
এবারের গেমসে বড় সাফল্যের আশা বাংলাদেশের। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এই গেমসের জন্য পুরস্কারের ঘোষণা করেছেন।
এ ব্যাপারে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এবারের এসএ গেমসে যাঁরা ভালো পারফর্ম করবে, তাদের পুরস্কৃত করা হবে। এর জন্য দেড় কোটি টাকা রাখা হয়েছে। ব্যক্তিগত ইভেন্টে স্বর্ণজয়ী ছয় লাখ, রুপাজয়ী তিন লাখ ও ব্রোঞ্জজয়ী এক লাখ টাকা করে পুরস্কার পাবে। আর দলগত ইভেন্টে স্বর্ণজয়ী দলের প্রত্যেক ক্রীড়াবিদেক এক লাখ, রুপাজয়ী প্রত্যেক দলকে ৫০ হাজার ও ব্রোঞ্জজয়ীদের ৩০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে।’