আদাবরে ঘরের মেঝেতে স্ত্রীর রক্তাক্ত লাশ, স্বামী লাপাত্তা

রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯

ঢাকা : রাজধানীর আদাবরের একটি বাসার মেঝে থেকে নাছিমা ওরফে হাসিনা বেগম (৩৬) নামে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় তার নাক-মুখে রক্ত লেগেছিল। ঘটনার পর থেকে তার স্বামী লাপাত্তা। পুলিশের ধারণা নাসিমাকে হত্যার পর পালিয়ে গেছে স্বামী।

রোববার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে আদাবর-১০ এর ৭১২/১৯/৫৩ বাসা থেকে নাসিমার লাশ উদ্ধার করে আদাবর থানা পুলিশ। পরে ময়নাতদন্তের জন্য নেয়া হয় শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

আদাবর থানার ওসি কাজী শাহীদুজ্জামান জানান, নিহতের স্বামীর নাম ডাবলু হাওলাদার রানা। তিনি দর্জির কাজ করেন। নিহত নাসিমার বাড়ি বাগেরহাটের মোড়লগঞ্জ উপজেলার চরহোগলা গুনিয়ায়। তারা ওই বাসায় ভাড়া থাকতেন।

ওসি জানান, নাসিমা ও ডাবলুর মধ্যে পারিবারিক বিরোধ চলছিল। নাসিমার এটি দ্বিতীয় বিয়ে। আর ডাবলুর আরও একটি স্ত্রী রয়েছে। পারিবারিক কলহ থেকে ডাবলু নাসিমাকে খুন করে থাকতে পারে। শনিবার রাত ১২ টা থেকে সকাল ৭ টার মধ্যে নাসিমা নিহত হন। তাকে সম্ভবত বালিশ চাপা দিয়ে মারা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে ডাবলু পলাতক।

সকালে স্থানীয়রা খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। সুরতহালের সময় নিহতের নাক ও কানে রক্ত দেখা গেছে। এ ঘটনায় একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে।