বেনাপোল সীমান্তে ১৬ পিস স্বর্ণের বারসহ ৩ পাচারকারী আটক

বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯

এম ওসমান, বেনাপোল প্রতিনিধি : ভারতে পাচার কালে বেনাপোল সীমান্ত থেকে পৃথক অভিযানে ১৬ পিস স্বর্ণের বারসহ ৩ পাচারকারীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা।

বুধবার (১৩ নভেম্বর) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত বেনাপোল সীমান্ত থেকে পৃথক অভিযান চালিয়ে বিজিবি তাদেরকে আটক করে।

আটকৃতরা হলো, যশোর আরএন রোড এলাকার মনির উদ্দিনের ছেলে রবিউল ইসলাম (৩৫), বেনাপোল পোর্ট থানার বড়আঁচড়া গ্রামের রমজান আলীর স্ত্রী মনিরা খাতুন (৪৫), বেনাপোল পোর্ট থানার ৩ নং ঘিবা গ্রামের নরেন বিশ্বাসের ছেলে শ্রী দিলীপ বিশ্বাস (৩৬)।

আমড়াখালী বিজিবি চেকপোষ্টের হাবিলদার শফিউদ্দীন জানান, গোপন খবরে জানা যায়, বেনাপোল সীমান্ত পথে ভারতে স্বর্ণের একটি চালান পাচার হবে। পরে বিজিবি সীমান্তে নিরাপত্তা জোরদার করে। এসময় যশোর থেকে বেনাপোলে মাহেন্দ্র যোগে বেনাপোল সীমান্তে আসার সময় আমড়াখালী বিজিবি চেকপোষ্ট থেকে রবিউলকে আটক করা হয়। পরে তার শরীর তল্লাশী করে প্যান্টের বেল্টের মধ্যে অভিনব কায়দায় রাখা ৮ পিস (ওজন ৭৮৫ গ্রাম)

স্বর্ণেরবার উদ্ধার করা হয়। অপরদিকে, ২১ ব্যাটালিয়ন বিজিবির দৌলতপুর ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার মশিয়ার রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পেরে, দৌলতপুর সীমান্তের গরুর খাটালের সামনে থেকে মনিরাকে আটক করা হয়। পরে তার শরীর তল্লাশী করে ৬ (ওজন ৭শ” গ্রাম) পিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

অন্যদিকে, ঘিবা বিজিবি ক্যাম্পের ইনচার্জ হাবিলদার ওবাইদুর রহমান জানান, গোপন সংবাদে জানতে পেরে, বেনাপোল ঘিবা সীমান্তের মাঠের মধ্যে থেকে ২ পিস (ওজন ২ কেজি) স্বর্ণের বারসহ দিলীপকে আটক করা হয়।

উদ্ধারকৃত স্বর্ণের বারের ওজন ৩ কেজি ৪শ” ৮৫ গ্রাম।

আটক আসামিদের বিরুদ্ধে স্বর্ণ পাচার আইনে মামলা দিয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলে তিনি জানান।