সরকার ও সংসদ অবৈধ : খসরু

মঙ্গলবার, নভেম্বর ১২, ২০১৯

ঢাকা: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় দুই ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনাকে সরকারের বড় ধরনের ব্যর্থতা আখ্যা দিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ‘এটা যে সরকারের কত বড় ধরনের প্রশাসনিক ব্যর্থতা তা বলার অপেক্ষা রাখে না। ক্ষমতাসীন সরকারের বিদায় হওয়া দরকার।’

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত জিয়াউর রহমানের মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

জাতীয়তাবাদী কর আইনজীবী ফোরামের নতুন কমিটি গঠন উপলক্ষে সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে নিয়ে মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যান আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী। এসময় কর আইনজীবী ফোরামের আহ্বায়ক মো. গিয়াস উদ্দিন এবং সদস্য সচিব কামরুল আলম চৌধুরী এবং বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম খানসহ বিএনপি ও নবগঠিত কর আইনজীবী ফোরামের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী ট্রেন দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে বলেন, যেখানে সরকার ও সংসদ অবৈধ। জনগণের প্রতি যাদের কোনো দায়বদ্ধতা নেই। সেখানে একজন মন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করে লাভ নেই। এখানে সরকারের পদত্যাগ করে জনগণের ভোটে নির্বাচিত একটি সংসদ দরকার। যারা জনগণের কাছে জবাবদিহি হবে। এরকম মুখোমুখি সংঘর্ষ হলে যারা জনগণের কাছে জবাব দিতে বাধ্য হবে। ঘটনার তদন্ত শেষে প্রতিবেদন পেশ করবে, বিচার হবে এবং ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে।

তিনি বলেন, আজকে বর্তমান সরকার জনগণের কাছে দায়বদ্ধ নয়। তাদের বিদায় হওয়া দরকার। জনগণের ক্ষমতা ফিরিয়ে দিয়ে তাদের বিদায় নিতে হবে। জনগণের নির্বাচিত সরকার হলে তারা জবাবদিহিতা করতে বাধ্য থাকবে।

উল্লেখ্য, গত ২৯ অক্টোবর জাতীয়তাবাদী কর আইনজীবী ফোরামের ১৫১ সদস্য বিশিষ্ট কেন্দ্রীয় আহবায়ক কমিটি অনুমোদন করে বিএনপি। এর আগে নয়াপল্টনের ভাসানী মিলনায়তনে মহিলা দল আয়োজিত এক আলোচনা সভায় খসরু বলেন, জাতীয় পার্টি হলো পরগাছা। এরা সরকারের ওপর নির্ভরশীল। সরকার সরে গেলে এদের অস্তিত্ব থাকবে না।