নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’ বললেন রাঙ্গা, প্রতিবাদে যা বলল মা

সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯

ঢাকা : স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহীদ নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর, ফেনসিডিলখোর’ বলায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপির সংসদ থেকে পদত্যাগের দাবি জানিয়ে প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। সোমবার বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এ প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে শহীদ নূর হোসেনের পরিবার।

নূর হোসেনের মামা কালা চান বলেন, নূর হোসেন গণতন্ত্রের প্রতীক। রাঙ্গা তাকে যে কথা বলেছেন জনগণ তার বিচার করবে। এমন মন্তব্য করার পর তার আর সংসদ সদস্য থাকার যোগ্যতা নেই। আমরা তার পদত্যাগ চাই। তিনি আরও বলেন, নূর হোসেন আমার একার ছেলে না, সে জনগণের ছেলে। সে জনগণের ছেলেকে নেশাখোর বলছে। সে যদি নেশাখোর হতো, তাহলে দেশের জন্য জান দিতে পারত না। আমি জনগণের কাছে বিচার চাই, আল্লাহর কাছে বিচার চাই।

অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে তিনি বলেন, আমার ছেলে বুকে-পিঠে স্লোগান লিখে রাজপথে নামল দেশের জন্য, জনগণের জন্য। কীসের জন্য নামল? ও কি পাগল ছিল, ওর কি জ্ঞান-বিচার ছিল না? আজ ৩০ বছর পরে ওরে নেশাখোর বলা হলো। আমি এ বিচারের দায়ভার জনগণের ওপর ছেড়ে দিলাম। জনগণের কাছে তাকে (মসিউর রহমান রাঙ্গা) ক্ষমা চাইতে হবে। অবস্থান কর্মসূচিতে নূর হোসনের মা মরিয়ম বিবি, তিন ভাই আলী হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন, বোন সাহানা বেগম, তাদের সন্তানেরাসহ অনেকে অংশ নেন৷

উল্লেখ্য, রোববার (১০ নভেম্বর) রাজধানীর বনানীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান কার্যালয়ে মহানগর উত্তর শাখার উদ্যোগে আয়োজিত ‘গণতন্ত্র দিবস’র এক আলোচনা সভায় জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেছেন, ‘হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ কাকে হত্যা করলেন। নূর হোসেন কে? নূর হোসেন কে? একটা অ্যাডিকটেড ছেলে। একটা ইয়াবাখোর, ফেন্সিডিলখোর।’