শিবগঞ্জে নির্মিত হচ্ছে ‘বঙ্গবন্ধু স্কয়ার’

শনিবার, নভেম্বর ৯, ২০১৯

জিএম মিজান, শিবগঞ্জ (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলা সদরের প্রাণ কেন্দ্রে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ করা হচ্ছে। পৌরসভার উদ্যোগে প্রায় ২১ লাখ টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। গত ১১ আগস্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলমগীর কবীর বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণকাজের উদ্বোধন করেন।

আগামী বছরের ১৭ মার্চ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীর দিন এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হবে ঘোষণা দিয়েছেন পৌর মেয়র তৌহিদুর রহমান মানিক। স্বাধীনতা লাভের ৪৮ বছর পর এই প্রথম শিবগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর নামে কোনো স্থাপনার নামকরণ হতে যাচ্ছে। জানা যায়, স্বাধীনতা লাভের আগে ১৯৭০ সালে শিবগঞ্জ থেকে আওয়ামী লীগের প্রাদেশিক সদস্য নির্বাচিত হন।

স্বাধীনতা লাভের পর ১৯৭৩ সালে প্রথম বগুড়া-২ (শিবগঞ্জ) আসনে নৌকা প্রতীকে এমপি নির্বাচিত হয়। এরপর থেকে এই উপজেলায় আর কখনও নৌকা প্রতীক নিয়ে কেউ বিজয়ী হতে পারেনি। অবশেষে সেই ‘খরা’ কাটিয়ে ৪৩ বছর পর ২০১৫ সালে শিবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়নে তৌহিদুর রহমান মানিক নৌকা প্রতীকে মেয়র নির্বাচিত হন। মেয়র নির্বাচিত হবার পর তিনি সিদ্ধান্ত নেন, উপজেলা সদরের প্রাণকেন্দ্র থানা গেটের সামনের পরিত্যক্ত গোল চত্বরের জায়গাটিতে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ করবেন।

আধুনিক নকশায় নির্মিত বঙ্গবন্ধু স্কয়ারটি হবে দৃষ্টিনন্দন। সেখানে সবাই সভা-সমাবেশ করতে পারবে। রাতে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারটি আলোয় আলোকিত হবে। যা শিশু-কিশোরদের অনুপ্রাণিত করবে। বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের নকশা করেছেন স্থপতি আরিফুল ইসলাম। শিবগঞ্জ পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী রাশেদ হাসিম বলেন, মেয়র মহোদয়ের আপ্রাণ চেষ্ঠায় শিবগঞ্জ পৌরসভার ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২০ লাখ ৯১ হাজার ৪৬৪ টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ করা হচ্ছে। মের্সাস সোনালী আকাশ এন্টারপ্রাইজ নামের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এটি নির্মাণ করছেন।

আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারের নির্মাণ কাজ শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে। এখানে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আধুনিকমানের একটি ছবি থাকবে। সেই সঙ্গে প্রচুর লাইটিংয়ের ব্যবস্থা থাকবে। এটি নির্মাণ হলে উপজেলা সদরের সৌন্দয্যবর্ধন হবে। শিবগঞ্জ উপজেলার উথলী উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল আলম মাস্টার বলেন, এক সময় এ উপজেলায় বঙ্গবন্ধুর নাম নেওয়া নিষিদ্ধ ছিল। কেউ বঙ্গবন্ধুর নামে স্লোগান দিলে তার ওপর নেমে আসতো নির্যাতনের খড়গ।

সময় বদলেছে। সেই অবস্থা এখন আর নেই। কিন্তু গত ৪৮ বছরে অনেকেই মন্ত্রী-এমপি হলেও বঙ্গবন্ধুর নামে কেউ কোনো কিছুই করেননি। সেদিক থেকে মেয়র তৌহিদুর রহমান মানিক সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়ে বঙ্গবন্ধুর নামে স্কয়ার নির্মাণ করছেন, যা খুব গর্বের বিষয়। আর একারণেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ-উচ্ছাস বিরাজ করছে। শিবগঞ্জ পৌরসভার মেয়র তৌহিদুর রহমান মানিক বলেন, উপজেলা সদরের প্রাণকেন্দ্রে বঙ্গবন্ধুর নামে কিছু একটা করার স্বপ্ন ছিল দীর্ঘদিনে। সেই স্বপ্ন থেকেই মুলত: বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ করার প্রচেষ্টা। আগামী ১৭মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে বর্ণিল আয়োজনে এর উদ্বোধন করা হবে। শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজার রহমান মোস্তা বলেন, প্রায় এলাকায় সরকারি উদ্যোগে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর নামে কোনো না কোনো স্থাপনা আছে। কিন্তু সেই থেকে আমরা এতোদিন পিছিয়ে ছিলাম।

দেরিতে হলেও পৌর মেয়র যে উদ্যোগ নিয়েছে তাকে স্বাগত জানায়। শিবগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আলমগীর কবীর বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু স্কয়ার নির্মাণ সত্যিই প্রশংসার দাবিদার। মহান মুক্তিযুদ্ধের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ করে তাঁর নামে স্কয়ার নির্মাণ করায় মেয়র মহোদয়কে ধন্যবাদ জানায়।