যে ৫টি বিষয় পুরুষ সঙ্গীকে বলবেন না

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৯

লাইফস্টাইল ডেস্ক : আপনার প্রেমিক কিংবা স্বামীর সঙ্গে সম্পর্কটা হয়তো খুব রোমান্টিক, তাই আপনার মুখে যা সত্যি আসছে সেটাই বলে দিচ্ছেন। যা বলা একেবারেই অযৌক্তিক সেটাও বলছেন। এটা আপনার সম্পর্কের জন্য কতখানি মঙ্গলজনক? যদি এমন হয় আপনার সত্যি কথাগুলোই সম্পর্ক নষ্ট করে দিচ্ছে, তাহলে নাই বা বললেন।

সুতরাং যে বিষয়গুলো আপনার পুরুষসঙ্গীকে মানসিকভাবে আঘাত দিতে পারে সেই বিষয়গুলো কখনই বলবেন না। এতে আপনার সম্পর্কে কোন ফাটল ধরার সম্ভাবনা থাকবেন না। সেই বিষয়গুলো জেনে নিন-

অতীতের অস্বস্তিকর ব্যাপার

অতীতে কোন সম্পর্কের ঘটনা শেয়ার করার ব্যাপারটা প্রায় সব পুরুষ সমানভাবে নিতে পারে না। এই ব্যাপারে হয়তো তার কষ্ট পাওয়া বা খারাপ লাগার বিষয় ঘটতে পারে। সুতরাং অতীতের কোন অস্বস্তিকর ব্যাপারগুলো আপনার সঙ্গীকে বলার কোনো প্রয়োজন নেই। সম্পর্ক ভালো রাখতে এসব বিষয় থেকে বিরত থাকুন।

তার পরিবার নিয়ে কটু কথা বলবেন না

আপনার কাছে যেমন আপনার পরিবারের লোকজন কিংবা আত্মীয়-স্বজন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি আপনার সঙ্গীর কাছেও তার পরিবার-পরিজন, আত্মীয়-স্বজন গুরুত্বপূর্ণ। তাই তার আপনজনদের ব্যাপারে কখনোই কোনো কটু কথা বলবেন না। আর যদি সম্পর্কে এই অমর্যাদার ব্যাপারটি চলে আসে, তাহলে কিন্তু ক্ষতি আপনারই। এতে আপনার সঙ্গী আপনার প্রতি আস্থা হারিয়ে ফেলতে পারে।

তুমি আমার পরিবারের যোগ্য হতে পার নি

প্রতিটি মানুষের নিজস্ব কিছু বৈশিষ্ট্য থাকে। নিজস্ব স্বভাব, যোগ্যতা ও বৈশিষ্ট্যের জন্যই প্রতিটি মানুষ আলাদা। আপনার সঙ্গীকে কখনই বলা উচিত হবে না যে তিনি আপনার পরিবারের মত যোগ্য হতে পারবে না। এতে আপনার সঙ্গী মানসিকভাবে ভেঙ্গে পরবেন এবং নিজের আত্মবিশ্বাস হারিয়ে ফেলবেন।

আমার অনেক বন্ধু আছে

আপনার অনেক ছেলে বন্ধ থাকুক এটা কোন প্রেমিক কিংবা স্বামী চায় না। তার উপর আপনার পুরুষ সঙ্গীর সামনে আপনার বন্ধুর সঙ্গে কি কি হয়েছে সবই বলে দিচ্ছেন। এতে আপনার সঙ্গীর মনে দেখা দিতে পারে অহেতুক সন্দেহ, আপনার বন্ধু আপনার প্রতি দুর্বল হয়ে পরেছে ইত্যাদি ভাবতে পারে। তাই ছেলে বন্ধু থাকলেও সবসময় আপনার সঙ্গীর সামনে তাদের কথা বলবেন না। তাছাড়া ছেলে বন্ধুর সঙ্গে বেশি ঘনিষ্ঠতা কিংবা ছেলে বন্ধু না থাকাই আপনার জন্য ভালো।

বন্ধুকে তুলনায় সঙ্গীর চেয়ে উপরে রাখা

‘তোমার চেয়ে আমার অমুক বন্ধু আমাকে অনেক বেশি কেয়ার করে। সে অনেক ভালো। সে আমাকে অনেক গুরুত্ব দেয়।’ এসব কথা সঙ্গীকে কখনও বলতে যাবেন না। এটি দুজনের সম্পর্ককে বিষিয়ে দিতে পারে মুহূর্তে।