তুর্কি-কুর্দি লড়াই ছড়িয়ে পড়ছে জার্মানিতে

শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সিরিয়ায় কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে তুরস্ক৷ এই হামলা বন্ধের দাবিতে জার্মানিতে বসবাসরত কুর্দিরা প্রতিদিন বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভ করছেন৷ তুর্কিরা এসব বিক্ষোভে বাধা দেয়ার চেষ্টা করছেন৷

বুধবার ল্যুডেনশাইড শহরে কুর্দি বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে তুর্কিদের সংঘর্ষের সময় ৫০ বছর বয়সি এক তুর্কি নাগরিক ছুরিকাহত হন বলে পুলিশ জানিয়েছে৷ তাঁকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে৷ ঐ ঘটনায় পাঁচ পুলিশ সদস্যসহ নয়জন আহত হন৷

একইদিন বট্রপ শহরে আরেকটি সংঘর্ষে আটজন সামান্য আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে৷ পুলিশ বলছে, প্রায় ৫০ জন কুর্দি অনুমতি নিয়ে একটি বিক্ষোভে অংশ নিচ্ছিলেন৷ সেই সময় একদল তুর্কি বিক্ষোভে বাধা দেয়ার চেষ্টা করেন৷ ‘‘সেখানে উসকানি ও পাথর ছোড়ার ঘটনা ঘটেছে,’’ বলে জানান এক পুলিশ কর্মকর্তা৷

কুর্দিশ ইন্সটিটিউট অফ প্যারিসের ২০১৭ সালের হিসেবে বিশ্বে কুর্দিদের আনুমানিক সর্বোচ্চ সংখ্যা সাড়ে চার কোটির বেশি৷ তাদের বেশিরভাগই সুন্নি মুসলমান৷ বাকিরা শিয়া, অ্যালেভিজম, ইয়াদিজম, ইয়ারসানিজমসহ অন্যান্য ধর্মের অনুসারী৷ কুর্দিদের ভাষা অনেকটা ফার্সির মতো৷

এর আগে সোমবার হ্যার্নে শহরে কুর্দিদের বিক্ষোভের সময় তুর্কিরা উসকানি দিলে কুর্দিরা তুর্কি মালিকানাধীন একটি ক্যাফে ভাঙচুর করেন৷ ঐ সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে এক পুলিশ কর্মকর্তাসহ পাঁচজন আহত হয়েছিলেন৷ জার্মানিতে তুর্কি বংশোদ্ভূত মানুষের সংখ্যা ৩০ লাখের বেশি৷ এর মধ্যে কুর্দিদের সংখ্যা ১০ লাখের বেশি৷

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, ৯ অক্টোবর শুরু হওয়া অভিযানের কারণে এখন পর্যন্ত প্রায় ৩০ হাজার মানুষ ঘরছাড়া হয়েছেন৷ নিহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন সাধারণ নাগরিক৷ আন্তর্জাতিক চাপ সত্ত্বেও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রেচেপ তাইয়্যিপ এর্দোয়ান অভিযান চালিয়ে যাচ্ছেন৷

সূত্রে, ডয়েসে ভেলে