বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে গোলাগুলি, বিএসএফ মেজর ‘নিহত’

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

ঢাকা : রাজশাহীর পদ্মা নদীতে ইলিশ ধরার সময় ভারতীয় এক জেলেকে আটককে কেন্দ্র করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে।

বিএসএফের বরাত দিয়ে ভারতীয় গণমাধ্যম দাবি করেছে, এতে বিএসএফের এক মেজরের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন আরও এক বিএসএফ সদস্য। নিহতের নাম বিজয় ভান সিংহ (৫০)।

এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্সও একই কথা বলছে।

বিজিবি সূত্র জানায়, রাত ৮টার পর দু’পক্ষের মধ্যে পতাকা বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

বিএসএফ’র বরাত দিয়ে বিবিসি বাংলা জানায়, আজ মুর্শিদাবাদ জেলার সীমান্তে পদ্মা নদীতে মাছ ধরতে যাওয়া কয়েকজন ভারতীয় মৎসজীবীকে বিজিবি আটকে রেখেছে, এই অভিযোগ পেয়ে তারা যখন পতাকা বৈঠক করতে বিজিবি’র চৌকিতে গিয়েছিল, তারপরেই ঘটনা নাটকীয় মোড় নেয়।

এর আগে আজ বিকেল ৩টার দিকে বিজিবির রাজশাহীর-১ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মেজর আসিফ বুলবুল সাংবাদিকদের জানান, ভারতীয় একজন জেলে তাদের কাছে আটক রয়েছে। বিকেল ৪টার দিকে বিজিবি ও বিএফএফ কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক ডাকা হয়েছে। তার পরই বিস্তারিত বলা যাবে। তারপর থেকে বিজিবির কোনো কর্মকর্তা ফোন ধরেননি।

এ বিষয়ে বিজিবি সদর দফতরে যোগাযোগ করা হলে গণমাধ্যম শাখার কর্মকর্তা মো. মহসিন রেজা সন্ধ্যার দিকে ব্রেকিংনিউজকে জানান, কিছুক্ষণের মধ্যেই একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঘটনাটির বিস্তারিত জানানো হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, আমি এমন একটি ঘটনার কথা শুনেছি। এ বিষয়ে বিস্তারিত জেনে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এদিকে, হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভিসহ ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো দাবি করছে, জিরো পয়েন্টে বিজিবি’র গুলিতে বিএসএফের হেড কনস্টেবল বিজয়ভান সিংহ মারা গেছেন। রাজবীর সিং নামে আরও এক বিএসএফ সদস্য আহত হয়েছেন।