বুয়েটের হলে হলে অভিযান শুরু

শনিবার, অক্টোবর ১২, ২০১৯

ঢাকা : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) হলে হলে উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয়েছে। শনিবার সকাল থেকে অভিযান শুরু হয়। ইতোমধ্যে ছাত্রলীগ বুয়েট শাখার সাবেক সভাপতি জামি-উস সানির কক্ষ সিলগালা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বুয়েটের আহসান উল্লাহ হলের ৩২১ নম্বর কক্ষে থাকতেন সানি।

এছাড়া শেরেবাংলা হলে বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেলের ৩০১২ নম্বর রুমও সিলগালা করে দেওয়া হয়েছে। আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন তিনি।

রুম সিলগালা করার ব্যাপারে জামি উস সানি গণমাধ্যমকে বলেন, আজকে সকালে আমি রুমেই ছিলাম। স্যাররা এসে সিলগালা করে দেন। আর আহসান উল্লাহ হলের ১২১ নম্বর কক্ষে হল ছাত্রলীগের অফিস ছিল। সেটাও সিলগারা করা হয়েছে। আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক ও অরাজনৈতিক সকল অছাত্রদের হল থেকে উচ্ছেদ চলছে। আমরা সহযোগিতা করবো।

বুয়েট প্রশাসন জানায়, ছাত্র রাজনীতি বন্ধের পর শনিবার সকাল থেকে যেসব কক্ষে প্রাক্তন ও চার সিটের কক্ষে দু-একজন ছাত্র তাদের বিরুদ্ধে এ অভিযান চলছে। এছাড়া আগামীতে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

প্রশাসনের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার বুয়েট প্রশাসন থেকে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা জারির পর এ অভিযান শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।

এদিকে আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) আবাসিক হলে অবৈধভাবে থাকা শিক্ষার্থীদের হলত্যাগ এবং ছাত্র রাজনীতি বন্ধসহ ৫ দফা দাবি মেনে নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। একই সঙ্গে এ সংক্রান্ত নোটিশও জারি করা হয়।