অনুমতি পায়নি বিএনপি, পুলিশ-নেতাকর্মীরা মুখোমুখি-উত্তেজনা

শনিবার, অক্টোবর ১২, ২০১৯

ঢাকা : জনসমাবেশের অনুমতি পায়নি বিএনপি। বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদ, ভারতের সাথে চুক্তি বাতিল এবং কারাবন্দি বিএনপির চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে পূর্বঘোষিত এই সমাবেশ করতে চেয়েছিল বিএনপি।

জনসমাবেশকে ঘিরে নয়াপল্টনে এলাকায় উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। পুলিশের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী নয়াপল্টনে। নয়াপল্টন ঘিরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ব্যাপক উপস্থিতিও দেখা যাচ্ছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আর নেতাকর্মীরা এখন মুখোমুখি অবস্থানে।

শনিবার (১২ অক্টোবর) দুপুর ১টা থেকে জনসমাবেশ হওয়ার কথা থাকলেও পুলিশের অনুমতি না থাকায় খণ্ড খণ্ডভাবে বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীরা নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে এসে জড়ো হয়ে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।

নয়াপল্টনে উপস্থিত আছেন বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল, কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন প্রমুখ।

জনসমাবেশকে ঘিরে নয়াপল্টন এলাকায় বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। নয়াপল্টনের আশপাশেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সরব উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। বিপুল সংখ্যক র‌্যাব ও পুলিশের পাশাপাশি মোতায়েন করা হয়েছে সাঁজোয়া যান এবং জলকামানবাহী গাড়ি।

সকালেই সমাবেশের অনুমতি চাইতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) কার্যালয়ে গিয়েছেন বিএনপির প্রতিনিধি দল। শনিবার (১২ অক্টোবর) সকালে বিএনপির প্রতিনিধি দলটি ডিএমপি কার্যালয়ে যান। কিন্তু প্রতিনিধি দল জানিয়েছে তাদের সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়নি। তবুও তারা শেষ পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

জানতে চাইলে নয়াপল্টন এলাকায় দায়িত্বরত পল্টন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, ‘যেহেতু এখন পর্যন্ত সমাবেশের অনুমতি দেয়া হয়নি অনুমতি না পেলে সমাবেশ করতে পারবে না।’