আবরার হত্যায় এবার জিয়নের স্বীকারোক্তি

শুক্রবার, অক্টোবর ১১, ২০১৯

ঢাকা : বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদকে পিটিয়ে হত্যার মামলায় বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ক্রীড়া সম্পাদক মেফতাতুল ইসলাম জিয়ন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

শুক্রবার ঢাকার মে‌ট্রোপ‌লিটন ম্যা‌জি‌স্ট্রেট মো. সারাফুজ্জামান আনছারীর আদাল‌তে জবানব‌ন্দি দেন তিনি। প‌রে তা‌কে কারাগা‌রে পাঠান আদালত। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান ফৌজদারি কার্যবিধি আইনের ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করার জন্য আদালতে আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে জিওনের জবানবন্দি গ্রহণ করেন বিচারক।

এর আ‌গে বৃহস্প‌তিবার স্বীকা‌রো‌ক্তি দেন আরেক আসা‌মি ইফ‌তি মোশাররফ সকাল। যি‌নি বুয়েট ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত উপ-সমাজসেবা সম্পাদক।

৮ অক্টোবর মেফতাতুল ইসলাম জিওনসহ ১০ জনের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এর পরদিন আরো তিন জনের পাঁচ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়।

উল্লেখ্য, গত ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় বুয়েটের ১৭তম ব্যাচের ইলেকট্রিক অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের (ইইই) ছাত্র আবরার ফাহাদ রাব্বীকে। ওইদিন রাত তিনটার দিকে শেরেবাংলা হলের দ্বিতীয় তলা থেকে আবরারের মরদেহ উদ্ধার করে কর্তৃপক্ষ। পুলিশ জানিয়েছে, তাকে পিটিয়ে হত্যার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় একাধিক ভিডিও ফুটেজও পাওয়া যায়। এ ঘটনায় পরদিন নিহতের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এর মধ্যে মোট ১৭ জনকে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা হয়েছে।