সিরিয়ায় তুর্কি অভিযানে নিহত ১৬

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১০, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সিরিয়ার উত্তর-পূর্ব সীমান্তে কুর্দি গেরিলাদের বিরুদ্ধে তুরস্কের অভিযানে এ পর্যন্ত অন্তত ১৬ জন নিহত ও ৪১ জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

‘অপারেশন পিস স্প্রিং’ অভিযানের প্রথম দিনে তুরস্কের বিমান ও কামান কুর্দিদের ১৮১টি স্থাপনায় আঘাত হেনেছে বলে জানিয়েছে আঙ্কারা। খবর সিএনএন ও নিউইয়র্ক টাইমসের।

সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস নামে একটি মানবাধিকার সংগঠন জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে চার নারী ও শিশুসহ আট বেসামরিক ব্যক্তি এবং সাত কুর্দি যোদ্ধা রয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে ১৩ জন বেসামরিক ব্যক্তি এবং ২৮ জন কুর্দি যোদ্ধা।

তবে সিরিয়ান ডেমোক্র্যাটিক ফোর্সের (এসডিএফ) তথ্যমতে অন্তত ৫ বেসামরিকসহ ৮ জন নিহত ও কয়েক ডজন আহত হয়েছে।

মার্কিন সমর্থিত কুর্দিদের সিরিয়ার উত্তর-পূর্ব এলাকা থেকে হটিয়ে দিতে এ অভিযান শুরু করেছে তুর্কি সেনাবাহিনী।

বুধবার ভোরের দিকে তুর্কি সেনাবাহিনীর অগ্রবর্তী দলগুলো তাল আবায়াদ ও রাস আল-আইন শহরের দুটি পয়েন্ট দিয়ে সিরিয়ায় ঢোকে বলে তুরস্কের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে জানিয়েছে ব্লুমবার্গ।

বুধবার বিমান হামলা চালানোর পাশাপাশি তাদের সেনাবাহিনী ও তুর্কি সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীরা তেল আবায়াদ ও রাস আল-আইনের ৪টি পয়েন্ট দিয়ে সীমান্ত অতিক্রম করে।

অভিযানের দ্বিতীয় দিনে বিমান হামলা ও স্থল অভিযান জোরালো করেছে তুরস্ক। দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা বেশ কিছু লক্ষ্যবস্তু দখল করেছে।

এছাড়া সীমান্তের কেন্দ্রীয় অঞ্চলে তুমুল লড়াই চলছে। অভিযান শুরুর পর বাড়িঘর ছেড়ে পালাতে শুরু করেছে হাজার হাজার মানুষ।