বিরোধ মেটাতে ইরান ও সৌদি সফর করবেন ইমরান

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১০, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দুই মুসলিম দেশ ইরান ও সৌদি আরবের মধ্যে উত্তেজনা এখন তুঙ্গে। বিশেষ করে গত ১৪ সেপ্টেম্বর সৌদি আরবের দুটি তেলক্ষেত্রে হামলার পর থেকে দুই দেশের সম্পর্ক আরও খারাপের দিকে গেছে।

সৌদির তেলক্ষেত্রে ঐ হামলার জন্য ইরানকেই দোষ দিয়ে আসছে সৌদি আরব ও যুক্তরাষ্ট্র। কিন্তু ইরান বরাবরই তা অস্বীকার করে আসছে। তাই মধ্যপ্রচ্যের এই চলমান উত্তেজনায় পানি ঢালতে দুই দেশের বিরোধ মেটাতে মধ্যস্থকারি হিসেবে ইরান ও সৌদি আরব ভ্রমণ করবেন ইমরান খান। চলতি মাসেই ইমরান খান এ সফর করবে বলে জানান পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দফতরের এক কর্মকর্তা।

ঐ কর্মকর্তা জানান আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই তেহরান এবং রিয়াদে সফর করবেন ইমরান খান। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে তার সফরের তারিখ এখনও ঘোষণা করা হয়নি।দু’দেশের মধ্যকার উত্তেজনা কমিয়ে আনতে মধ্যস্ততাকারী হিসেবে দু’দেশে সফর করবেন ইমরান খান।

এ ব্যাপারে ইমরান খান জানান, ইরানের সঙ্গে সৌদির উত্তেজনা কমিয়ে আনতে সহায়তা করার জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাকে আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দেয়ার আগে রিয়াদে সফর করেছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে ক্রাউন প্রিন্সের বিশেষ বিমানে করেই নিউইয়র্কে পৌঁছান তিনি।