খাওয়ার জন্য পানি চাইলে না দিলে কেমন দেখা যায়: পানি বণ্টন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী

বুধবার, অক্টোবর ৯, ২০১৯

ঢাকা : ফেনী নদীর পানিবণ্টন নিয়ে ভারতের সঙ্গে সমোঝতার চুক্তির সমালোচনার জবাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেছেন, ‘যে চুক্তিটা হয়েছে সেটা তাদের খাবার পানির জন্য।

তারা যখন আন্ডারগ্রাউন্ড থেকে পানি তোলে, সেটার প্রভাব আমাদের দেশেও পড়ে। তাই নদী থেকে সামান্য পানি দিচ্ছি। কেউ যদি পানি পান করতে চায়, আর আমরা না দেই, সেটা কেমন দেখা যায়?’

বুধবার (৯ অক্টোবর) বিকেলে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেন। নিউইয়র্ক ও দিল্লি সফরের অভিজ্ঞতা জানাতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে জানতে চান ‘ফেনী নদীর উৎপত্তিস্থল কোথায়?’ এসময় উপস্থিত সাংবাদিক চুপ ছিলেন। একজন উত্তর দিলেও সেটি ভুল বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘ফেনী নদীর উৎপত্তিস্থল খাগড়াছড়িতে। এটা বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী একটা নদী। এর ৯৪ কিলোমিটার সীমান্তে, ৪০ কিলোমিটার বাংলাদেশের ভেতরে। সীমান্তবর্তী নদীতে দুই দেশেরই অধিকার থাকে।

যে চুক্তিটা হয়েছে, সেটা ত্রিপুরাবাসীর খাবার পানির জন্য। তারা যখন আন্ডারগ্রাউন্ড থেকে পানি তোলে, সেটার প্রভাব আমাদের দেশেও পড়ে। তাই নদী থেকে সামান্য পানি দিচ্ছি। সব জায়গায় আমরা নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করেছি। যেটুকু পানি নিয়েছে, ততটুকু আমাদের অংশে পড়েছে বলেই চুক্তি করেছি।’

এছাড়া তিস্তা, ধরলা, দুধকুমারসহ উজান থেকে আসা নদীগুলোর পানি বণ্টনের বিষয়ে আলোচনা চলছে বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।