ওয়ালটন টিভিতে ৭৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি , ৫২ ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান পুরস্কৃত

বুধবার, অক্টোবর ২, ২০১৯

ঢাকা : টিভি ব্র্যান্ডিং এ প্রথম পুরস্কারপ্রাপ্ত এরিয়া ম্যানেজারের হাতে ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান এসএম নূরুল আলম রেজভী ও পরিচালক রাইসা সিগমা হিমাসহ অতিথিরা

ঘরে ঘরে পৌঁছে যাচ্ছে ওয়ালটন পণ্য। ঘরে ঘরে শোভা পাচ্ছে ওয়ালটন টিভি। মানুষের তথ্য আর বিনোদনের প্রধান অনুষঙ্গ হয়ে উঠেছে ওয়ালটন টিভি। আর তাই চলতি বছরের গেল ৯ মাসের ওয়ালটন টিভি বিক্রিতে ৭৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে। ব্যাপক বিক্রির প্রেক্ষাপটে ওয়ালটন টিভি এখন বাজারে হটকেক।

ওয়ালটন টিভি বিক্রির এই সাফল্য ‘টিভি ব্র্যান্ডিং অ্যান্ড সেলস অ্যাওয়ার্ড’ প্রোগ্রাম-এর। যাতে ৩০ জন এরিয়া ও জোনাল ম্যানেজারকে পুরস্কৃত করা হয়। পাশাপাশি ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন ফোরের আওতায় টিভির সৃজনশীল ব্র্যান্ডিং কার্যক্রম পরিচালনা করায় ১১ জন এরিয়া ম্যানেজার ও ১১টি প্রতিষ্ঠানকে দেয়া হয় ‘বেস্ট ব্র্যান্ডিং অ্যাওয়ার্ড’।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীতে ওয়ালটন করপোরেট অফিসে আয়োজিত ওই অনুষ্ঠানে পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দেন ওয়ালটন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান এসএম নূরুল আলম রেজভী এবং পরিচালক রাইসা সিগমা হিমা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ওয়ালটনের নির্বাহী পরিচালক ইভা রিজওয়ানা, এমদাদুল হক সরকার, এস এম জাহিদ হাসান, মো. হুমায়ুন কবীর, মোহাম্মদ রায়হান, ড. মো. সাখাওয়াৎ হোসেন, আরিফুল আম্বিয়া, আমিন খান, টিভি বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) প্রকৌশলী মোস্তফা নাহিদা হোসেন, টিভি মার্কেটিং ইনচার্জ মারুফ হাসান, টিভির প্রোডাক্ট ম্যানেজার তানবির মাহমুদ শুভ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে এসএম নূরুল আলম রেজভী বলেন, ওয়ালটনের টিভি মেনুফ্যাকচারিং ইউনিটে রয়েছে দেশের অন্যতম বৃহৎ গবেষণা ও উন্নয়ণ বিভাগ। সেখানে অত্যন্ত মেধাবী, দক্ষ ও প্রশিক্ষিত প্রকৌশলীরা টেলিভিশন খাতের লেটেস্ট প্রযুক্তি নিয়ে নিয়মিত গবেষণা চালাচ্ছেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ওয়ালটন গ্রাহকদের হাতে তুলে দিচ্ছে আগামী প্রজম্মের কোয়ান্টাম ডট প্লাস প্রযুক্তির স্পেকট্রা কিউ, বাংলা ভয়েস কন্ট্রোল স্মার্ট টিভি, জিরো বেজেল ডিসপ্লে’র মতো অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও ফিচারসমৃদ্ধ টেলিভিশন। আগামী বছরের শুরুতেই ওয়ালটন ওএলইডি প্রযুক্তির টেলিভিশন বাজারে ছাড়বে বলে জানান তিনি।

‘টিভি ব্র্যান্ডিং অ্যান্ড সেলস অ্যাওয়ার্ড’ এর বিজয়ীর হাতে ক্রেস্ট ও সনদ তুলে দিচ্ছেন ওয়ালটন গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান এসএম নূরুল আলম রেজভী ও পরিচালক রাইসা সিগমা হিমাসহ অতিথিরা

রাইসা সিগমা হিমা বলেন, অত্যাধুনিক ফিচার, নিঁখুত ও ঝকঝকে ছবি, ডিজিটাল সাউন্ড, আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন ও দেশের সর্বত্র দ্রুত বিক্রয়োত্তর সেবার নিশ্চয়তা- এসব বৈশিষ্ট্যর কারণে স্থানীয় বাজারে ওয়ালটন টিভি ক্রেতাদের কাছে হটকেক। ফলে, গত বছরের টিভি বিক্রির পরিমাণ এ বছরের প্রথম সাত মাসেই অর্থাৎ জুলাইয়ের মধ্যে ছাড়িয়ে গেছে। এছাড়া জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই নয় মাসে গত বছরের একই সময়ের চেয়ে ৭৬ শতাংশ বেশি টেলিভিশন বিক্রি হয়েছে। এরই মধ্যে বার্ষিক লক্ষ্যমাত্রার প্রায় ৮৬ শতাংশ টিভি বিক্রি হয়েছে।

ওয়ালটন টিভির সিইও মোস্তফা নাহিদ হোসেন জানান, অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও মেশিনারিজের সমন্বয়ে আন্তর্জাতিক মানের এলইডি ও স্মার্ট টিভি উৎপাদন করছে ওয়ালটন। এসব টিভিতে রয়েছে অত্যাধুনিক ফিচার। এরই প্রেক্ষিতে সিই, আরওএইচএস, ইএমসি এর মতো ইউরোপিয়ান স্ট্যান্ডার্ড ও মান সনদ অর্জন করেছে।

বিপণন বিভাগের কর্মকর্তারা জানান, স্থানীয় বাজারে ওয়ালটন টিভির গ্রাহকপ্রিয়তা বেড়েছে আশাতীত। বিশেষ করে বড় পর্দার অর্থাৎ ৮১৩ মিলিমিটার (৩২ ইঞ্চি), ৯৯১ মিমি (৩৯ ইঞ্চি) ও ১.০৯ মিমি (৪৩ ইঞ্চি) টিভির গ্রাহকচাহিদা ব্যাপক বেড়েছে। স্থানীয় টিভির বাজারে সিংহভাগ মার্কেট শেয়ার এখন ওয়ালটনের। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ওয়ালটন টিভি এখন এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার পাশাপাশি ইউরোপেও রপ্তানি হচ্ছে। শিগগিরই বিশ্বের শীর্ষ অনলাইন সেলস প্ল্যাটফর্ম আমাজানের মাধ্যমে আমেরিকার বাজারে মিলবে ওয়ালটন টিভি।

উল্লেখ্য, ওয়ালটন টিভিতে ৬ মাসের রিপ্লেসমেন্ট গ্যারান্টি সুবিধাসহ ৮১৩ মিমি বা তদূর্ধ্ব সাইজের এলইডি ও স্মার্ট টিভির প্যানেলে ৪ বছরের গ্যারান্টি সুবিধা। রয়েছে সর্বোচ্চ ৩৬ মাসের সহজ কিস্তির সুযোগ। আইএসও সনদপ্রাপ্ত সার্ভিস ম্যানেজমেন্টের আওতায় দেশব্যাপী বিস্তৃত ৭০টিরও বেশি সার্ভিস সেন্টারের মাধ্যমে ক্রেতাদের দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা দিচ্ছে ওয়ালটন।