সৌদিতে প্রকাশ্যে চুমু খেলে গুণতে হবে জরিমানা

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইতোমধ্যে নারীদের গাড়ি চালানো, ব্যবসা করা, সি বিচে গায়ে হাওয়া লাগানো এমনকি স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখার অনুমতি দিয়েছে সৌদি সরকার। ধর্মীয় রক্ষণশীলতা ভেঙে ক্রমে সংস্কারমুক্ত হওয়ার প্রয়াস চালাচ্ছে দেশটি।

সৌদি আরবের অর্থনীতিতে তেল নির্ভরতা কমিয়ে আনতে এবার পর্যটন ভিসা চালু করছে দেশটি। তবে পর্যটকদের জন্য রাখা হচ্ছে কিছু বিধিনিষেধ।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যমগুলোর খবরে জানানো হয়েছে, গেল শুক্রবার এক বিবৃতিতে দেশটিতে পর্যটন ভিসা চালু করার ঘোষণা দিয়েছেন সৌদি আরবের পর্যটন প্রধান আহমাদ আল-খতিব। তবে পর্যটকদের জন্য কিছু কড়াকড়িও আরোপ করা হয়েছে।

সেইসব বিধিনিষেধের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে, কোনও পর্যটক প্রকাশ্যে কোনও নারীকে চুমু খেতে পারবে না, কিংবা আবেগী কোনও আচরণ করতে পারবে না। যদি কেউ তা করে তবে অবশ্যই জরিমানা গুণতে হবে।

ওই বিবৃতিতে আরও উল্লেখ করা হয়, সৌদিতে এসে পর্যটকরা মদ্যপান,পানি ফেলা, থুতু ফেলা, কোনো সারি লঙ্ঘন, বিনা অনুমতিতে ছবি তোলা বা ভিডিও করা, নামাজের সময় গান বাজানোসহ অশালীন পোশাক পরা সহ মোট ১৯টি অপরাধের জন্য জরিমানার মুখোমুখি হবেন।

আর সেই জরিমানার পরিমাণ ৫০ (১৩ ডলার) থেকে ৬ হাজার রিয়াল (১ হাজার ৬০০ ডলার) পর্যন্ত হতে পারে।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবে পর্যটন ভিসা চালু হলেও এখনও বিশ্বের সব দেশের মানুষ দেশটিতে ঘুরতে যেতে পারছেন না। সৌদির দরোজা বিশ্বের মাত্র ৪৯ টি দেশের ‍জন্য উন্মুক্ত।