দুদু’র বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহার দাবিতে সরকারকে ১৮ সাবেক ছাত্রনেতার হুঁশিয়ারি

সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

ঢাকা: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে দায়ের করা ‘মিথ্যা’ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন সাবেক ১৮ জন ছাত্রদল নেতা। একইসঙ্গে সরকারের প্রতি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে সাবেক এই ছাত্রদল নেতারা বলেছেন, যদি এ ধরনের অগণতান্ত্রিক মনোভাব ও কর্মকাণ্ড পরিহার না করা হয় তবে এদেশের ছাত্রসমাজ গণতন্ত্রমনা জনগণকে সঙ্গে নিয়ে এর সময়োচিত জবাব দেয়া হবে।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে তারা এ দাবি জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেন- ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন, আমান উল্লাহ আমান, রুহুল কবির রিজভী আহমেদ, ফজলুল হক মিলন, নাজিম উদ্দিন আলম, খাইরুল কবির খোকন, কামরুজ্জামান রতন, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, হাবিব উন-নবী খান সোহেল, এ বি এম মোশাররফ হোসেন, আজিজুল বারী হেলাল, শফিউল বারী বাবু, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, আমিরুল ইসলাম খান আলীম, আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল, হাবিবুর রশিদ হাবিব, রাজীব আহসান ও আকরামুল হাসান মিন্টু।

সেখানে সাবেক ছাত্রনেতারা বলেন, টিভি টকশোতে বলা দুদুর একটি বক্তব্যের অপব্যাখ্যা করে তার বাড়িতে হামলা ও তার বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা মামলা’ দায়ের করা হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

সাবেক ছাত্রনেতারা আরও বলেন, শামসুজ্জামান দুদু এদেশের ছাত্র রাজনীতির এক উজ্জ্বল নক্ষত্র এবং গণতান্ত্রিক সমাজ নির্মাণে তার অপরিসীম ত্যাগ। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের সংগ্রামে তার সাহসী উচ্চারণ আওয়ামী বাকশালীদের গায়ে তীব্র দাবানলের সৃষ্টি করেছে। তাই বাকশালী শক্তি গণতন্ত্রের সব রীতিনীতিতে উপেক্ষা করে স্বৈরাচারী কায়দায় তার বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাদের সন্ত্রাসী মনোভাব জাতির সামনে নগ্নভাবে প্রকাশ করেছে।

উল্লেখ্য, একটি বেসরকারি টেলিভিশন টক শোতে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার হুমকি দেয়ার অভিযোগ এনে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে মামলাটি করেন কেন্দ্রীয় যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক মহিউদ্দিন আহমেদ মাহি। আরজিতে দুদুর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির আবেদন করেন মামলার বাদী। একই সঙ্গে তিনি দাবি করেন, শামসুজ্জামান দুদুর এই বক্তব্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় সারা দেশে জনমনে ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।