ছাত্রদলের নতুন কমিটির কার্যক্রম স্থগিত করেছেন আদালত

সোমবার, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০১৯

ঢাকা: হঠাৎ একদিন আগে যে আদালত কাউন্সিলে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিলেন সেই একই আদালত ছাত্রদলের নতুন কমিটির কার্যক্রমের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

একই সঙ্গে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ছাত্রদলের নতুন সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন ও সাধারণ সম্পাদক মো. ইকবাল হোসেন শ্যামলকে কারণ দর্শানোর আদেশ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ঢাকার সিনিয়র চতুর্থ সহকারী জেলা জজ নুস্রাত সাহারা বিথী এ আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের পেশকার কল্যাণ কুমার সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।

গত ১৪ সেপ্টেম্বর ছাত্রদলের কাউন্সিল হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ছাত্রদলের সদ্য বিলুপ্ত কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-ধর্মবিষয়ক সম্পাদক আমানউল্লাহ আমানের এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে গত ১২ সেপ্টেম্বর ছাত্রদলের কাউন্সিলের ওপর অস্থায়ী নিষেধাজ্ঞার আদেশ জারি করেছিলেন। একই সঙ্গে ছাত্রদলের কাউন্সিলে কেন স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হবে না, তা জানতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ১০ নেতাকে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।

তবে দলীয় আইনজীবীদের পরামর্শে অনেকটা নাটকীয়ভাবে গত বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) কাউন্সিল করে বিএনপির এই সহযোগী সংগঠনটি। বাধা-বিপত্তিসহ নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি বিবেচনায় ইতিহাস সৃষ্টি করে স্বচ্ছ ভোটের মাধ্যমে নেতৃত্ব নির্বাচন করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল।

এতে ১৮৬ ভোট পেয়ে ফজলুর রহমান খোকন সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কাজী রওনুক ইসলাম শ্রাবণ পেয়েছেন ১৭৮ ভোট। আর ১৩৯ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ইকবাল হোসেন শ্যামল। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাকিরুল ইসলাম জাকির পেয়েছেন ৭৭ ভোট।