এবার স্পা সেন্টারে অভিযান, অনৈতিক কার্যকলাপে আটক ১৬

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯

ঢাকা: ক্যাসিনো ও জুয়ার পর এবার রাজধানীর গুলশান-১ এর নাভানা টাওয়ারের লাইফস্টাইল হেলথ ক্লাব, স্পা অ্যান্ড সেলুনে অভিযান পরিচালনা করছে পুলিশ। এসময় ১৬ জন নারী ও তিনজন যুবককে আটক করা হয়।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টায় এ অভিযান শুরু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গুলশান বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) সুদীপ কুমার চক্রবর্তী।

উল্লেখ্য, ঢাকায় ক্লাবভিত্তিক ক্যাসিনো বা জুয়ার আসর বন্ধের পর দেশজুড়ে শুরু হচ্ছে এই অভিযান। পুলিশ সদর দফতর থেকে সারাদেশে জুয়া আর জুয়াড়িদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে এসপিদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

মহানগর, জেলা ও উপজেলা থেকে শুরু করে গ্রাম পর্যন্ত জুয়ার গড ফাদার, জু য়া বোর্ড পরিচালনায় জড়িত এবং জুয়াড়িদের এলাকাভিত্তিক তালিকা তৈরিও শুরু হয়েছে।ঢাকা: রাজধানীর গুলশানের তিনটি স্পা সেন্টারে অভিযান চালিয়ে ১৬ নারী ও ৩ জন পুরুষসহ ১৯ জনকে আটক করা হয়েছে। স্পা সেন্টারগুলো হলো- লাইভ স্টাইল হেল্থ ক্লাব অ্যান্ড স্পা অ্যান্ড সেুলন, ম্যাঙ্গো স্পা ও রেডিডেন্স সেলুন-২ অ্যান্ড স্পা।

রোববার রাত ৮টার দিকে গুলশানের নাভানা টাওয়ারের ১৮, ১৯ ও ২০ তলায় অবস্থিত এ তিনটি স্পা সেন্টারে অভিযান শুরু করে গুলশান থানা পুলিশ।
গুলশানের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, এই স্পা সেন্টারগুলোতে অসামাজিক কার্যকলাপ হয়, এমন তথ্যের ভিত্তিতে আমরা রাত আটটার দিকে তিনটি ফ্লোরে অভিযান চালাই। অভিযানে ১৬ জন নারী ও ৩ জন পুরুষসহ মোট ১৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি আমরা যাচাই করে দেখি যে এসব ব্যবসায়ের সাথে কারা কারা জড়িত। এখানকার মালিকপক্ষ কারা, কারা এটি পরিচালনা করতো। সার্বিকভাবে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি।
তিনি আরও বলেন, আমরা প্রাথমিকভাবে জানতে পেরেছি, এখানে আগত গ্রাহকদের সঙ্গে স্প্যার আড়ালে অনৈতিক কার্যকলাপে লিপ্ত হতেন আটক এই ১৬ নারী। আর আটক তিনজন পুরুষ গ্রাহক।
সুদীপ কুমার বলেন, আটকদের এখন থানায় পাঠানো হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে এবং এই স্প্যাগুলোর মালিক কে তাও জানা হবে। অভিযানে প্রাপ্ত সব তথ্য আমরা যাচাই-বাছাই করছি। এ বিষয়ে দ্রুত মামলা করা হবে।