গার্মেন্টসের ভিসায় এসে ক্যাসিনো ক্লাব পরিচালনা করতেন ১৩ নেপালী

রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯

ঢাকা: রাজধানী মতিঝিলের ভিক্টোরিয়া স্পোর্টিং ক্লাব, দিলকুশা স্পোর্টিং ক্লাব, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ ও মোহামেডান ক্রীড়াচক্রে অবৈধ ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে অভিযান চালয়েছে পুলিশ। এসব ক্যাসিনোর সবগুলো মতিঝিল থানার ২০০ থেকে ১০০ গজের মধ্যে। মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অবৈধ ক্যাসিনো পরিচালনায় কাজ করত নেপালের ১৩ নাগরিক। তারা বাংলাদেশে গার্মেন্টস প্রোডাক্টের ব্যবসার কথা বলে ভিসা নিয়ে অবৈধ এসব ক্যাসিনো পরিচালনা করত বলেও জানা গেছে।

রবিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অবৈধ ক্যাসিনোর বিরুদ্ধে পুলিশের অভিযান শেষে এসব তথ্য জানা যায়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের ক্যাসিনো পরিচানার দায়িত্বে ছিল ১৩ নেপালী নাগরিক। যারা বাংলাদেশে গার্মেন্টস প্রোডাক্টের ব্যবসার কথা বলে ভিসা নিয়ে প্রবেশ করে। পরে গোপন যোগাযোগের ভিত্তিতে এসব ক্লাবের ক্যাসিনোতে তারা চাকরি করে। নেপালী নাগরিকরা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অবৈধ ক্যাসিনোর প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ জায়গায় দায়িত্বরত ছিল।

আরও জানা গেছে, এই ১৩ নেপালী নাগরিকের মাসিক ৬০০ ডলার (৫১ হাজার ৩০০ টাকা) থেকে শুরু করে ১ হাজার ডলার (৮৫ হাজার ৫০০ টাকা পর্যন্ত ছিল। প্রতি মাসে এই ১৩ নেপালী নাগরিকে ৬ লাখ ৪৯ হাজার ৮০০ টাকার বেতন দিত মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

এ বিষয়ে মতিঝিল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শফিক বলেন, আমরা এখানে ১৩ নেপালী নাগরিক কাজ করত বলে কাগজপত্র পেয়েছি। তাদের ভিসা আবেদনপত্র, নামের লিস্ট ও সেলারি লিস্টসহ আরও কাগজপত্র পেয়েছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এই ১৩ নেপালী নাগরিক এই ক্যাসিনোটি পরিচালনা করত।

তিনি বলেন, আমাদের অভিযান এখানে সমাপ্ত হয়েছে। এখানে পাওয়া সকল মালামাল জব্দ করা হয়েছে। ক্যাসিনোর সরঞ্জামসহ ৩০ প্রকার মালামাল জব্দ করা হয়েছে।