মুনসের ব্যাটিং তাণ্ডব: ৪১ বলে সেঞ্চুরি, ওভারে ৩২ রান, ইনিংসে ১৪ ছক্কা

মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: আরও একটি রেকর্ড ম্যাচের সাক্ষী হলো ক্রিকেটবিশ্ব! ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে সোমবার স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হয় নেদারল্যান্ডস। দুদল মিলে তোলে ৪৪৬ রান। এতে রেকর্ড বুকে বেশ ওলটপালট হয়।

ডাবলিনে প্রথমে ব্যাট করে স্কোর বোর্ডে ২৫২ রান তোলে স্কটল্যান্ড। ওপেনিং জুটিতে ২০০ রান এনে দেন জর্জ মুনসে ও কাইল কোয়েটজার। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে যেকোনো উইকেটে তৃতীয় সর্বোচ্চ রানের জুটি এটি। সর্বোচ্চ রানের তিনটি জুটিই এসেছে ওপেনিং ব্যাটসম্যানদের হাত ধরে।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সর্বোচ্চ ২৩৬ রানের জুটি গড়েন আফগানিস্তানের দুই ওপেনার হজরতউল্লাহ জাজাই ও উসমান গনি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রানের জুটি অস্ট্রেলিয়ার ডি আর্চি শর্ট ও অ্যারন ফিঞ্চের। গেল বছর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ২২৩ রান তোলেন তারা।

৫০ বলে ১১ চার ও ৫ ছক্কায় ৮৯ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন কোয়েটজার। তবে সেঞ্চুরি তুলে নেন মুনসে। ১৪ ছক্কার বিপরীতে ৫ চারে ৫৬ বলে ১২৭ রানের বিধ্বংসী ইনিংস খেলেন তিনি। সহযোগী দেশের হয়ে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের ইনিংস এটিই।

দুর্দান্ত ইনিংসটি খেলার পথে মাত্র ৪১ বলে তিন অঙ্কের ম্যাজিক ফিগার স্পর্শ করেন মুনসে। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে এটি তৃতীয় দ্রুততম সেঞ্চুরি। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এক ইনিংসে যুগ্মভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ছক্কা মারার নজিরও গড়েছেন তিনি। এ ফরম্যাটে এক ইনিংসে তার চেয়ে বেশি ছক্কা মেরেছেন কেবল জাজাই। আইরিশদের বিপক্ষে সেই ম্যাচে ১৬ ছক্কায় অপরাজিত ১৬২ রানের টর্নেডো ইনিংস খেলেন তিনি।

এদিন ওভারে সর্বোচ্চ রান নেয়ার রেকর্ডও নাম লিখিয়েছেন মুনসে। ডাচ বোলার ম্যাক্স ও’ডউডের এক ওভারে ৩২ রান আদায় করেন তিনি। এ সংস্করণে ওভারে তার চেয়ে বেশি রান নিতে পেরেছেন শুধু ভারতের যুবরাজ সিং। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ডারবানে স্টুয়ার্ট ব্রডের ওভারে ৬ বলে টানা ৬ ছক্কা হাঁকিয়ে ৩৬ রান নেন তিনি।

তবে মুনসের রেকর্ডময় দিনে ব্যাটিং ইনিংসের শেষটা ভালো করতে পারেনি স্কটল্যান্ড। ওপেনিং জুটির কল্যাণে ১৫.১ ওভারে ২০০ রানের ভীত পেলেও শেষ পর্যন্ত ৩ উইকেটে ২৫২ রান তুলতে সক্ষম হন স্কটিশরা। তাড়া করতে নেমে ৭ উইকেটে ১৯৪ রান সংগ্রহ করতে পারে নেদারল্যান্ডস। ফলে ৫৮ রানে জয় পায় স্কটল্যান্ড।