দুঃসময়ে থাকা দল ভয়ঙ্কর: ডমিঙ্গো

শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : ক্রিকেট বোর্ডের ওপর সরকারের হস্তক্ষেপের কারণে আইসিসির ইভেন্টগুলোতে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা পোহাচ্ছে জিম্বাবুয়ে। অবশ্য দ্বিপক্ষীয় ও ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলতে বাধা নেই তাদের। তবে এগুলোতেও জিম্বাবুইয়ানদের কোনো খরচ বহন করবে না ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা।

এসবের ভেতরেই বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে এসেছে তারা। তবে সংকটাপূর্ণ অবস্থার মধ্য দিয়ে যাওয়া দলটিকে মোটেও হালকাভাবে নিচ্ছেন না টাইগারদের নবনিযুক্ত কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।

শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ। উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের মোকাবেলা করবে বাংলাদেশ। এ ম্যাচ দিয়েই জয়ের ধারায় ফিরতে চান টাইগাররা। এর আগে বেশ সতর্ক তিনি।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচ সামনে রেখে ডমিঙ্গো বলেন, যে দল প্রায়ই প্রতিকূলতার মুখোমুখি হয়, তারা সম্মিলিতভাবে দারুণ কিছু করে দেখাতে পারে। এ প্রতিকূলতায় একটি দলকে হয় ধ্বংস করে করে দেয় নতুবা সংঘবদ্ধ করে। তারা (জিম্বাবুয়ে) আফ্রিকার একটি অংশ থেকে এসেছে। আর আমি এসেছি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে। আমার কোনো সন্দেহ নেই জিম্বাবুয়ে এখন যে পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, সেটি তাদের সামনে এগিয়ে যেতে ঐক্যবদ্ধ করবে।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের পরিসংখ্যান তেমন ভালো নয়। জিম্বাবুয়ের বিদায়ী অধিনায়ক হ্যামিল্টন মাসাকাদজা এরই মধ্যে আত্মবিশ্বাসী কণ্ঠে বলেছেন, তারা ম্যাচটি জিততে চান। নিজেদের ক্রিকেটের জন্যই আরেকবার অনন্য পারফরম্যান্স প্রদর্শন করতে চান।

ডমিঙ্গোও বাংলাদেশকে ফেভারিট ভাবছেন না। তিনি বলেন, আমরা প্রত্যেকটা ম্যাচ জয়ের জন্য খেলব। তবে টি-টোয়েন্টিতে যেকোনো দিন যেকোনো দল যে কাউকেই হারাতে পারে। আমি এ ম্যাচ নিয়ে কোনো নিশ্চয়তা দিতে পারছি না। তবে আমরা নিজেদের সেরাটাই দেয়ার চেষ্টা করব।

টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে একমাত্র টেস্টে আফগানিস্তানের কাছে বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ। সেই দলটিও আছে জিম্বাবুয়ের সঙ্গে। আফগানদের বিপক্ষে টেস্টে কোনো পেসার ছাড়াই খেলতে নামে সাকিব বাহিনী।

তবে ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে খেলানো হতে পারে পেসার। বাংলাদেশ কোচ সেই আভাসই দিয়েছেন। ডমিঙ্গো বলেন, এটা সম্পূর্ণ ভিন্ন ফরম্যাট। সামনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। কাজেই কিছু ফাস্ট বোলার খেলানো প্রয়োজন। আমি মনে করি, এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রোটিয়া কোচের ইঙ্গিতে স্পষ্ট, তিন জাতি সিরিজে দলের পেসারদের পরখ করবেন তিনি। আগামী বছর অস্ট্রেলিয়ায় বসবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরবর্তী আসর। এর আগে ওয়ানডেতে তেমন খেলা নেই বাংলাদেশের।

তবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের কারণে সাদা পোশাকে বেশ কিছু ম্যাচ খেলবেন সাকিবরা। ডমিঙ্গোর বিশেষ নজর তাই টেস্ট আর টি-টোয়েন্টিতে। তিনি বলেন, আগামী কয়েকটা মাস আমাদের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টিতে নজর দিতে হবে। দুই ফরম্যাট মিলিয়ে অনেক ম্যাচ আছে। সুতরাং আমাদের উন্নতি করার চেষ্টা করতে হবে।