গফরগাঁওয়ে ২ গ্রামবাসীর সংঘর্ষে যুবক নিহত

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

ময়মনসিংহ: ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে বুধবার রাতে দুইদল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে হুমায়ূন (২৮) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় হুমায়ূনের ভাই জজ (২৬) ও তার মা রাহেনা খাতুন (৭০) আহত হয়েছে।
হুমায়ূন উপজেলার রাওনা গ্রামের রাওনা গ্রামের মতিন মিয়ার ছেলে। হুমায়ূনের ভাই জজকে গুরুতর আহত অবস্থায় ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, উপজেলার রাওনা গ্রামের মতিন মিয়ার বাড়ির লোকজনের সঙ্গে ধোপাঘাট গ্রামের শহর মেম্বারের বাড়ির লোকজনের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর জের ধরে বুধবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে ধোপাঘাট গ্রামের লোকজন রাওনা গ্রামের কাঞ্চন মিয়াকে মারধর করে। পরে রাত ৮টার দিকে ধোপাঘাট গ্রামের লোকজন রাওনা গ্রামের মতিন মিয়ার বাড়িতে হামলা চালায় এবং হুমায়ূনের বৃদ্ধ মা রাহেনা খাতুনকে (৭০) পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে তারা ধোপাঘাট বাজারে গিয়ে রাওনা গ্রামের ইসমাইলের চা স্টল ভাংচুর করে।
খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৯টার দিকে হুমায়ূন ও জজ এর নেতৃত্বে রাওনা গ্রামের বেশ কয়েকজন লোক ধোপাঘাট বাজারে যায়। এ সময় ধোপাঘাট গ্রামের শরীফুল, নয়ন, ছাইদুল, সিরাজের নেতৃত্বে রাওনা গ্রামের লোকজনের উপর হামলা চালানো হয়। এ সময় তারা রাওনা গ্রামের মতিন মিয়ার ছেলে হুমায়ূন ও জজকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। এলাকাবাসী আহতদের উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। অবস্থার অবনতি হলে তাদেরকে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হয়। ঢাকা নেওয়ার পথে হুমায়ুনের মৃত্যু হয়।
এ ব্যাপারে গফরগাঁও থানার ওসি অনুকূল সরকার জানান, এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে এলাকার পরিবেশ শান্ত রয়েছে।