আড়াই বছরের জেল হলো আরদা তুরানের

বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক : একজন গায়কের নাক ভেঙে তার স্ত্রীকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্যও করে পরে হাসপাতালে গিয়ে গুলি ছুড়ে তুরস্কের এক আদালত থেকে আড়াই বছরেরও বেশি সাজা পেয়েছেন আরদা তুরান।

গত বছরের অক্টোবরে এক নাইটক্লাবে গায়ক বার্কে শাহিনের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে যান তুরান। শাহিনের স্ত্রীকে নিয়ে তার কটূক্তি করাকে ঘিরেই ঝগড়ার সূত্রপাত। মারামারির এক পর্যায়ে গায়কের নাক ভেঙে দেন ৩২ বছর বয়সী ফুটবলার। ভাঙা নাক নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন শাহিন। সেখানেও হানা দেন তুরান। পিস্তল নিয়ে হাসপাতালে গিয়ে ছোড়েন গুলি। সৃষ্টি হয় আতঙ্ক।

অবৈধভাবে অস্ত্র বহন, আতঙ্ক ছড়ানো, উদ্দেশ্যমূলকভাবে মারামারি ও যৌন নিগ্রহের সেসব দায়ে বুধবার তুরানকে দুই বছর আট মাস ১৫ দিনের জেল দেন আদালত। সঙ্গে জরিমানা করা হয়েছে ২৫ লাখ টার্কিশ লিরা (৪৩২৩০১.৭০ ডলার)।

জেল হলেও স্বস্তির খবর হলো কারাগারে থাকতে হচ্ছে না তুরানকে। তুরস্কের আইন অনুযায়ী, প্রথমবারের মতো এ ধরনের অপরাধ করায় আপাতত রেহাই পাচ্ছেন এ মিডফিল্ডার। তবে আগামী ৫ বছরের মধ্যে কোনো ধরনের অপরাধ করলে বড় রকমের শাস্তি পেতে হবে তাকে।