ওপেন এজলাসে “আপনি কিছু বুঝেন না” বলে বিচারককে পেশকারের কটুক্তি

বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক  : বরিশালে ওপেন এজলাসে “আপনি কিছু বুঝেন না” বলে বিচারককে কটুক্তি করেছেন পেশকার মুরাদ হোসেন গাজী। গত ৭ আগস্ট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা জজ এ,এইচ,এম, মাহমুদুর রহমানকে একথা বলে কটুক্তি করেন সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের পেশকার মুরাদ।

এজন্য ৮ আগস্ট ১০ দিনের সময় দিয়ে বিচারক তাকে শোকজ করেন এবং কার্য্য তালিকায় মামলার তারিখ উল্লেখ না করায় ১৪ আগস্ট তিনদিনের সময় দিয়ে আরও একটি শোকজ নোটিশ দেন।

সূত্র জানায়, দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ও বিশেষ দায়রা আদালতের বিচারক জেলা জজ এ,এইচ,এম, মাহমুদুর রহমান সাক্ষরিত শোকজ নোটিশে বলেন,বিগত ০৭ আগস্ট ট্রাইব্যুনালের বিচার কার্য চলাকালে বিশেষ দায়রা মামলা নং-১৫১/২০১৬ এর আসামি মোঃ সহিদ খান, পিতা-ইসমাইল খান, সাং-বিহারীপুর, থানা-বাকেরগঞ্জ ও জেলা-বরিশাল এর নামে ঝালকাঠি জেলার একটি জি.আর. মামলার প্রেক্ষিতে ইস্যুকৃত পি.ডব্লিউ. প্রত্যাহার সংক্রান্ত বিষয়ে শুনানীকালে আপনি বেঞ্চ সহকারী মুরাদ হোসেন গাজী অযাচিতভাবে নিম্ন স্বাক্ষরকারীকে (বিচারক) “আপনি কিছু বুঝেন না” মর্মে প্রকাশ্য আদালতে কটুক্তি করেন।

আসীন বিচারকের প্রতি বেঞ্চ সহকারীর উক্তরূপ আচরণ একদিকে যেমন কর্তৃপক্ষের প্রতি ধৃষ্টতা প্রদর্শনের সামিল, অন্যদিকে তেমনি ভাবে সরকারী কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপীল) বিধিমালা, ২০১৮ এর ২(খ) বিধি মতে অসংগত আচরণ কিংবা চাকুরী শৃঙ্খলার জন্য হানিকর আচরণ, যা অসদাচরণ এর সামিল।

তাই আপনার উক্তরূপ আচরণের কারণে কেন আপনার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে না তৎমর্মে আগামী ১০(দশ) কার্য দিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হল।

সংশ্লিষ্ট কর্মচারীকে অবগত করানো হোক। ১৪ আগস্ট একইভাবে তাকে ২য় শোকজ নোটিশে বিচারক বলেন, আপনি বেঞ্চ সহকারী মুরাদ হোসেন গাজী ১৪ আগস্ট দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ও বিশেষ দায়রা আদালত, বরিশাল এর কোর্ট ডায়েরী ও দৈনিক কার্য তালিকায় কেন কোন মামলার তারিখ রাখেন নাই, তৎমর্মে আগামী ০৩(তিন) কার্য দিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর জন্য আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হল।

সংশ্লিষ্ট কর্মচারীকে অবগত করানো হোক। এব্যাপারে জানতে চাইলে বেঞ্চ সহকারী (পেশকার) মুরাদ হোসেন গাজী নোটিশ প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে জবাবের বিষয়ে বলেন, এমুহূর্তে কিছু বলা যাবেনা।