বগুড়ায় যমুনা নদীতে নিখোঁজ হওয়া দুই ভাইয়ের একজনের মরদেহ উদ্ধার

শনিবার, আগস্ট ১৭, ২০১৯

খালিদ হাসান, বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার সারিয়াকান্দির যমুনা নদীতে পিতার চোখের সামনে নদীতে ডুবে গিয়ে নিখোঁজ হওয়া দুই ভাইয়ের মধ্যে একজনের মরদেহ উদ্ধার করেছে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিদল।

শনিবার (১৭ আগস্ট) দুপুরের দিকে যমুনা নদীর তলদেশে বালুর নিচে চাপা পড়া অবস্থায় ওমর আলী (১৪) নামের ঐ ভাইয়ের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

অপরজনের মরদেহ উদ্ধারের জন্য ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা নদীর তলদেশে তল্লাশি অব্যাহত রেখেছেন। তার ছোট ভাই জাহিদ হাসানের (১২) মরদেহ এ রিপোর্ট লেখা (শনিবার বিকাল ৫টা) পর্যন্ত উদ্ধার হয়নি।

ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ধারণা করছেন, জাহিদ হাসানের মরদেহ যমুনার তলদেশে বালুর নিচে চাপা রয়েছে। দুই ভাই ডুবে যাওয়ার স্থান থেকে পাঁচ কিলোমিটার ভাটিতে যমুনা নদীর তলদেশ থেকে ওমর আলীর মরদেহ উদ্ধারের পর ঐ এলাকাতেই ডুবুরিরা তল্লাশি অব্যাহত রেখেছেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে সারিয়াকান্দি উপজেলার কাজলা ইউনিয়নে যমুনার পাকুরিয়া চরে বন্ধুদের সাথে ফুটবল খেলার সময় নদীতে পড়ে যাওয়া বল আনতে গিয়ে তীব্র স্রোতে ভেসে যায় ওমর আলী (১৪) ও জাহিদ হাসান (১২) নামের দুই সহদর।

তারা বগুড়া শহরের আটাপাড়ার পল্লী চিকিৎসক আতিকুর রহমানের ছেলে। তাদের গ্রামের বাড়ি সারিয়াকান্দি উপজেলার কাজলা ইউনিয়নে পাকুরিয়া চরে।

এব্যাপারে সারিয়াকান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) আল-আমিন বলেন, উদ্ধার করা ওমর আলীর মরদেহ তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। বিকাল ৫টা পর্যন্ত অপরজনের মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়নি।#