প্রেমিকার ঘরে আপত্তিকর অবস্থায় প্রেমিক ধরা, যেভাবে হলো মীমাংসা

রবিবার, আগস্ট ৪, ২০১৯

ঢাকা: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে প্রেমিকার ঘরে গিয়ে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়েন প্রেমিক। প্রেমিক মেরাজুল ইসলাম (২৪) চৌপাকিয়া গ্রামের মো. রেজাউল ইসলামের ছেলে। আর প্রেমিকা একই গ্রামের রউফ সর্দারের মেয়ে তাসলিমা খাতুন (২১)।

শনিবার (৩ আগস্ট) রাতে উপজেলার নওগাঁ ইউনিয়নের চৌপাকিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। রাতভর সালিস বৈঠক শেষে রোববার দুপুরে গ্রামবাসী তাদের বিয়ে দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, শনিবার রাত ১১টার দিকে কুচিয়ামারা ডিগ্রি কলেজের ছাত্র মেরাজুল ইসলাম প্রেমিকা তাসলিমার সঙ্গে তার বাড়িতে দেখা করতে যান। তাসলিমাকে ঘরে একাকী পেয়ে মেরাজুল ঘনিষ্ট হয়ে পড়েন। বিষয়টি টের পেয়ে প্রতিবেশীরা বাইরে থেকে দরজায় তালা লাগিয়ে মাতুব্বরদের ডেকে আনেন।

উভয় পরিবারের সদস্যদের নিয়ে রাতভর বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন মাতুব্বররা। তবে রোববার দুপুরে উভয় পরিবার বিয়েতে সম্মতি দেন। পরে কাজী ডেকে এনে সাড়ে ৩ লাখ টাকা দেনমোহরে মেরাজুল ও তাসলিমার বিয়ে হয়।

এ বিষয়ে মেরাজুলের বাবা রেজাউল ইসলাম বলেন, ‘ছেলে-মেয়ে পরস্পরকে ভালোবাসে। আমরা আপত্তি জানিয়ে কি হবে? এজন্য তাদের সুখ ও সামাজিক সম্মান রক্ষার জন্য বিয়ে দেয়া হয়েছে।’