আ’লীগের আন্দোলনেই কারাগার থেকে খালেদার মুক্তি মেলে: হাছান মাহমুদ

শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০১৯

ঢাকা : তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আওয়ামী লীগের আন্দোলনের কারণেই ১/১১ সময় কারাগার থেকে খালেদা জিয়ার মুক্তি মিলেছিল। ওই সময় আওয়ামী লীগ ছাড়া কেউ মাঠে আন্দোলন করেনি।

আজ শুক্রবার (১৯ জুলাই) ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত ‘শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস’ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, কারাগার অন্তরীণ খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে এখন আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই।

খালেদা জিয়াকে মুক্তি করতে আন্দোলনের হুমকি দিয়ে বিষয়টি দেশবাসীর কাছে হাসির খোরাকে পরিণত করেছে বিএনপি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি নেতারা দুইদিন পরপর অভিযোগ করে বলেন কারাগারে তাদের নেত্রী খেতে পারছেন না, প্রাণহানির শঙ্কা রয়েছে। পরে আমরা খবর নিয়ে জানতে পারি, খালেদা জিয়ার জিহ্বায় কামড় লাগায় কয়েকদিন খেতে পারেননি। আমরা আগেও বলেছি এখনও বলছি যে, আইনি প্রক্রিয়া ছাড়া তাদের নেত্রীর মুক্তি সম্ভব নয়।

বিএনপির আমলে দেশ দুর্নীতিতে পরপর পাঁচবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আজ বিএনপি নেতাকর্মীরা সরকারের সব উন্নয়নের মধ্যেই দোষ খুঁজে বেড়ায়। দেশে উন্নয়নের নামে একশ্রেণীর মানুষের পকেট ভারি হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের। অথচ আমরা দেখেছি উন্নয়নের নামে করা তাদের অপকর্মে দেশ পরপর পাঁচবার দুর্নীতিতে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল।

উদাহরণ হিসেবে তিনি বলেন, সে সময় বিশ্বব্যাংক তাদের ৫টি প্রকল্প থেকে অর্থ ফিরিয়ে নিয়েছিল। তারা নিজেরা দুর্নীতিগ্রস্ত ছিলো বলেই অন্যদের কাজের মধ্যে ‘কিন্তু’ খোঁজার চেষ্টা করে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

দেশের উন্নয়ন নিয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, এডিবি স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছে যে, গত অর্থবছরে দেশের প্রবৃদ্ধি ছিল ৮ দশমিক ১ শতাংশ। দেশের মানুষের ক্রয়ক্ষমতা বেড়েছে, বিদ্যুতের ব্যবহার ৪০ শতাংশ থেকে এখন ৯৫ শতাংশ, মাথাপিছু আয় ৬০০ ডলার থেকে এখন দুই হাজার ডলার হয়েছে।

আলোচনা সভায় আরও সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উপদেষ্টা জাহাঙ্গীর আলম খান। আরও বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ,বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।