‘রিফাতকে শিক্ষা দিতে চেয়েছিলেন মিন্নি’

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯

বরগুনা : বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার তার স্ত্রী আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বরগুনার পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, মিন্নি রিমান্ডে বলেছেন, রিফাতকে হত্যা নয়, শিক্ষা দিতে চেয়েছিলেন তিনি।

বুধবার মিন্নি আদালতে বলেছিলেন, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তার কোন সম্পৃক্ততা নেই। তিনি তার স্বামী হত্যার বিচার চান। যদিও সেদিন আদালতে তার পক্ষে কোন আইনজীবী ছিল না। মিন্নির বাবা মোজাম্মেল হোসেন গণমাধ্যমকে বলেছেন, তার মেয়ের পক্ষে লড়তে কোন আইনজীবী রাজি হননি।

পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন আজ দুপুরে বলেন, মঙ্গলবার দিনভর মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। বুধবার রিমান্ড মঞ্জুরের পর পুলিশ তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করছে। মিন্নি এ হত্যার পরিকল্পনার সঙ্গে যুক্ত ছিল। এদিকে, রিফাত শরীফ হত্যা মামলার তৃতীয় আসামি রিশান ফারাজীকেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. শাহজাহান হোসেনের নেতৃত্বে একটি দল অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। তবে কোথা থেকে রিশানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তা জানায়নি পুলিশ। রিশান বরগুনা পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের ধানসিঁড়ি রোডের দুলাল ফরাজীর ছেলে এবং এই মামলার দ্বিতীয় আসামি রিফাত ফরাজীর ছোট ভাই।

রিফাত শরীফ হত্যা মামলার প্রধান সাক্ষী মিন্নিসহ এখন পর্যন্ত ১৬ জন অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এছাড়াও মামলার প্রধান অভিযুক্ত নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। গ্রেপ্তারদের মধ্যে ১০ জন রিফাত হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। এছাড়াও এ মামলার চারজন অভিযুক্ত রিমান্ডে রয়েছেন।