জি এম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯

ঢাকা : জাতীয় পার্টির (জাপা) প্রতিষ্ঠাতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের মৃত্যুতে তার ভাই জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) রাজধানীর বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ঘোষণা দেন সংসদে প্রধান বিরোধীদলের ভূমিকায় থাকা দলটির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাঁ।

তিনি বলেন, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, জি এম কাদেরই আজ থেকে দলের চেয়ারম্যান হবেন। জাতীয় পার্টির গঠনতন্ত্রের ০/১ ক ধারা অনুযায়ী হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ মৃত্যুর আগে বলে গেছেন, তার অবর্তমানে জি এম কাদের দলের চেয়ারম্যান হবেন।’

সংবাদ সম্মেলনে মহাসচিবের পাশেই ছিলেন নতুন চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তবে এসময় দেখা যায়নি এরশাদের স্ত্রী ও দলের সিনিয়র কো চেয়ারম্যান রওশন এরশাদকে।

ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ১০ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর গত ১৪ জুলাই সকাল সোয়া ৮টার দিকে ৮৯ বছর বয়সে শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন সাবেক সামরিক শাসক এরশাদ। গত মঙ্গলবার বেলা ২টা ২৯ মিনিটে রংপুর কালেক্টরেট ঈদগাহ মাঠে চতুর্থ নামাজে জানার পর ওইদিনই বিকেল ৫টা ৪০ মিনিটে পল্লীনিবাসে এরশাদকে চিরঘুমে শায়িত করা হয়।

এর আগে গত জানুয়ারিতে চিকিৎসার জন্য বিদেশ যাওয়ার আগে ছোট ভাই জি এম কাদেরকে দলের ভবিষ্যত চেয়ারম্যান ঘোষণা করেন এরশাদ। এ নিয়ে জাপার রাজনীতিতে নানা নাটকীয়ার জন্ম হয়।

এর পর চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরে মার্চে ‘ব্যর্থতার’ অভিযোগ এনে জি এম কাদেরকে জাতীয় পার্টির সাংগঠনিক দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেন এরশাদ। এমনকি সংসদে বিরোধী দলের উপনেতার দায়িত্ব থেকেও কাদেরকে সরিয়ে সেখানে দায়িত্ব দেন স্ত্রী রওশন এরশাদকে। রওশান এরশাদ বর্তমানে জাপার সিনিয়র কো-চেয়ারম্যানের দায়িত্বে আছেন।

কিন্তু দায়িত্ব দিয়েও আবার সরিয়ে নেয়ায় রংপুরে নেতাকর্মীদের তীব্র প্রতিবাদের মুখে দুই সপ্তাহের মধ্যে পুনরায় জি এম কাদেরকে দায়িত্ব পুনর্বহাল করেন এরশাদ। তখনই নিজ বাসায় সংবাদ সম্মেলন করে ছোট ভাইকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের পদে বসান সাবেক রাষ্ট্রপতি এরশাদ।

এরশাদের এই একক সিদ্ধান্ত নিয়েও তখন জাপার সিনিয়র নেতাদের মধ্যে ক্ষোভ ও অসন্তোষ দেখা দিয়েছিল। জি এম কাদেরকে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান করার পর জাপার কোনও কর্মসূচিতেই দেখা যায়নি দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান রওশান এরশাদকে।

তবে এরশাদের মৃত্যুর পর সব মতবিরোধ মিটিয়ে নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে এখন দলকে শক্ত হাতে সুসংগঠিত রাখতে হবে জি এম কাদেরকেই।