চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের চুরি হওয়া টাকা পাওয়া গেল মাটির নিচে

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯

জাহিন সিংহ, সাভার থেকে : চিত্রনায়ক অনন্ত জলিলের চুরি হওয়া টাকা তার ব্যক্তিগত গাড়ি চালকের বাড়ির উঠানের মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঢাকা জেলা (উত্তর) ডিবি পুলিশের ওসি আবুল বাশার।

এর আগে, গত ৭ এপ্রিল অনন্ত জলিলের মালিকানাধীন সাভারের এ জে আই গ্রুপের গ্যাস বিল বাদত ৫৭ লক্ষ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় চালক। এ ঘটনায় একটি চুরির মামলা দায়ের করা হয় সাভার মডেল থানায়।

এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে গাড়ির চালক শহীদ বিশ্বাস (২৭), স্ত্রী আরজু বেগম (২৫) ও তার শ্যালক জুয়েল (২১) কে গ্রেপ্তার করে বুধবার আদালতে পাঠানো হয়।

পরে আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার বাড়ির উঠানে মাটির নিচে পুঁতে রাখা ২০ লক্ষ টাকা ও স্ত্রীর কাছ থেকে ৭ লক্ষ টাকা উদ্ধার করে ডিবি পুলিশ। এছাড়া ৮ লক্ষ টাকা তার শ্বশুর বাড়িতে দিয়ে অবশিষ্ট টাকা গাড়ি চালক নিজে খরচ করে বলে জানা গেছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, রাজধানীতে অনন্ত জলিলের বাসা থেকে জহিরুল ইসলাম নামে কারখানার এক কর্মকর্তা ওই গাড়িচালককে সাথে নিয়ে কারখানার ৫৭ লক্ষ টাকা গ্যাস বিল দিতে সাভারে ব্যাংকের উদ্দেশ্যে রওনা হন। পরে তিনি গাড়িতে টাকা রেখে সোনালী ব্যাংকে প্রবেশ করলে টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় চালক শহীদ বিশ্বাস। এরপর থেকেই পলাতক ছিল সে।

ঢাকা জেলা (উত্তর) ডিবি পুলিশের ওসি আবুল বাশার জানান, মামলাটি ডিবিতে স্থানান্তরের পর গাড়ি চালকের গ্রামের বাড়ি ভোলার দৌলতখান থানার জয়নগর মহল্লা থেকে আসামী গেপ্তার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়। আদালতে দেওয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী মাটির নিচ থেকে ২০ লক্ষ টাকা ও স্ত্রীর কাছ থেকে ৭ লক্ষ টাকা উদ্ধার করা হয়।