অনিশ্চয়তায় ‘দত্তা’!

বুধবার, জুলাই ১৭, ২০১৯

বিনোদন ডেস্ক : লোকসভা নির্বাচন শেষ হয়েছে দুই মাস হতে চলল। কিন্তু চিত্রনায়ক ফেরদৌসের ভারতে ফেরার কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে না। আর সে কারণেই মূলত আটকে রয়েছে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত ‘দত্তা’ ছবির শুটিং।

নির্বাচন চলাকালীন ভারতে ছিলেন ফেরদৌস। আর সেই সময় রাজনৈতিক প্রচারে অংশ নেন অভিনেতা। তারপরেই বিপত্তির সূত্রপাত। কাঁটাতারের ভেদাভেদ মুছে দর্শকদের মন জয় করা অভিনেতাই বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতন্ত্রের উৎসবে ‘প্রচার করে’ রীতিমতো বিপাকে পড়েছিলেন। এতটাই, যে তার ভিসা বাতিল করে দিয়েছে ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

ছবির কাজ অসম্পূর্ণ রেখেই পত্রপাঠ বাংলাদেশে ফিরে গিয়েছিলেন অভিনেতা। মাত্র কুড়ি শতাংশ এগিয়েছিল ছবির কাজ, বাকিটাতে এখনো হাত দিতে পারেননি পরিচালক। আগেই নির্মল চক্রবর্তী জানিয়েছিলেন, “আমার ছবির প্রায় ৮০ শতাংশ ইনডোরের কাজ বাকি। জুনে আবার শুটিং শুরু করার প্ল্যান আছে।

আশা করছি ততদিনে সবটা মিটে যাবে। প্রায় ২০ বছর ধরে ফেরদৌস কলকাতায় আসছে, কাজ করছে। একটা নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়েছে, তার জন্য ক্ষমাও প্রার্থনা করেছে। মনে হচ্ছে ঠিক হয়ে যাবে।” এদিকে জুন পেরিয়ে জুলাই, এখনো সেই রকম কোনো আশা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না।

পরিচালক নির্মল চক্রবর্তীর সঙ্গে আবারো যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, “যে বাড়িটাতে শুটিং করব সেটা প্রায় অক্টোবর পর্যন্ত বুক রয়েছে। সুতরাং, আমাদের হাতে খানিকটা সময় রয়েছে। তারপরেও ফেরদৌস ভারতে আসতে না পারলে আমাদের অন্য কিছু ভাবতে হবে। তবে এখনই কিছু গুরুতর ভাবছিনা।”

শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের উপন্যাস ‘দত্তা’ অবলম্বনে বাংলা ছবি। প্রায় ৪০ বছর আগে ১৯৭৮ সালে বাংলাতেই অজয় করের পরিচালনায় মুক্তি পেয়েছিল আরেক ‘দত্তা’। সেখানে কিংবদন্তী নায়িকা সুচিত্রা সেনকে দেখা গিয়েছিল বিজয়ার চরিত্রে। ছবিতে তার সঙ্গে ছিলেন শমিত ভঞ্জ, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়রা। এবারের ‘দত্তা’-র পরিচালনার দায়িত্ব কাঁধে নিয়েছেন নির্মল চক্রবর্তী।

ছবিতে ঋতুপর্ণা ছাড়াও ছিলেন ফিরদৌস। রয়েছেন জয় সেনগুপ্ত এবং রাসবিহারীর ভূমিকায় দেখা যাবে বর্ষীয়ান চরিত্রাভিনেতা বিশ্বজিৎ চক্রবর্তীকে। নির্বাচন শেষ না হওয়া পর্যন্ত ‘দত্তা’-র ভবিষ্যত অনিশ্চিতই ছিল। কিন্তু এতদিন কেটে যাওয়ার পরও শুটিং নিয়ে কোনো উচ্চবাচ্য শোনা যাচ্ছেনা। ফেরদৌস না ফিরলে কী অন্যকোনো ব্যবস্থা নেবে টিম দত্তা? সে সম্ভবনা অবশ্য উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছে না। সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস