উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র আমেরিকার ভূখণ্ডে আঘাত হানতে সক্ষম

বৃহস্পতিবার, জুলাই ১১, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মার্কিন সেনাবাহিনী জানিয়েছে, উত্তর কোরিয়ার সর্বশেষ আন্তমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র হাউসাং-১৫ আমেরিকার মূল ভূখণ্ডের যেকোনো স্থানে আঘাত হানতে সক্ষম।

কোরিয়া উপদ্বীপে মোতায়েন মার্কিন সেনাবাহিনী বা ইউএসএফকে উত্তর কোরিয়ার দীর্ঘ পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র বিষয়ে করা প্রথম আনুষ্ঠানিক পর্যালোচনায় বলেছে, ১২ হাজার ৮৭৪ কিলোমিটার পাল্লার হাউসাং-১৫ ক্ষেপণাস্ত্র আমেরিকার যেকোনো ভূখণ্ডে অনায়াসেই পৌঁছাতে সক্ষম। খবর পার্সটুডে।

‘২০১৯ স্ট্রেটিজিক ডাইজেস্ট’ শীর্ষক একটি বার্ষিক প্রতিবেদনে ইউএসএফকে জানিয়েছে, কোরিয় উপদ্বীপকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার মার্কিন চাহিদার অনেক দূরে অবস্থান করছে পিয়ংইয়ং। পিয়ংইয়ংকে সম্ভাব্য পরমাণু নিরস্ত্রীকরণ করার জন্য আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন গত বছর থেকে এ পর্যন্ত তিনবার শীর্ষ বৈঠকে মিলিত হয়েছেন। নিরস্ত্রীকরণের বিনিময়ে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর থেকে সব ধরনের মার্কিন নিষেধাজ্ঞা ওঠে যাওয়ার বিষয়টি এসব শীর্ষ বৈঠকের মুল উদ্দেশ্য ছিল। তবে সব আলোচনাই ব্যর্থ হয়েছে।

উত্তর কোরিয়ার পরমাণু ওয়ারহেড বহনে সক্ষম ব্যলিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে ওয়াশিংটন ও পিয়ংইয়ংয়ের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। ২০১৭ সালে ট্রাম্প ও কিম দু’জনই একে অপরকে পরমাণু বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পুরোপুরি ধ্বংস করে দেয়ার হুমকি দিয়েছেন।