পাবনায় যুবদলের গাড়ী বহরে হামলায় যুবদলের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

বুধবার, জুলাই ১০, ২০১৯

ঢাকা : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সভাপতি সাইফুল আলম নীরব ও সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু এক বিবৃতিতে সম্প্রতি সরকার নিয়ন্ত্রিয় আদালতে প্রহসন মূলক নজির বিহীন রায়ে হাসিনার ট্রেন যাত্রায় হামলা মামলায় ষড়যন্ত্র মূলক ভাবে ইশ্বরদি পৌর যুবদলের সভাপতি নুর আলম শ্যমলকে ফাঁসির আদেশ ও পাবনা জেলা যুবদলের সাবেক সহ সাধারণ সম্পাদক এনামুল হাসান সরদার কে ১০ বছর সাজা দিলে কেন্দ্রীয় যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদদ মোহাম্মদ নূরুল ইসলাম নয়ন ও সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন হাসানের নেতৃত্বে যুবদলের একটি কেন্দীয় প্রতিনিধী দল শ্যমল ও এনামুল এর বাড়িতে সমবেদনা জানাতে যাওয়ার পথে গাড়ী বহর পাবনা অতিক্রম কালে যুবলীগের চিহ্নিত সন্ত্রাসী সজিব মালিথার নেতৃত্বে হামলা চালিয়ে গাড়ী ভাংচুর এবং যুবদলের পাবনা জেলা শাখার সহসভাপতি মামুনুর রহমান লালন, আফজাল হোসেন ,যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সজিব ও সহ সাধারণ সম্পাদক পান্না সহ দশ জন যুবদল নেতাকে গুরুতব আহত করার তিব্র নিন্দা, প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় আনার দাবি করেছেন।

বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন একদিকে প্রহসন মূলক বিচারের নামে নিরাপরাধ ব্যক্তিদের মৃত্যুদন্ড মত সাজা দেওয়া হচ্ছে অন্য দিকে দাগী খুনি ফাঁসির দন্ড প্রাপ্ত আসামীদের সাজা মওকুফ করে দেওয়া হচ্ছে যার ফলে আজ সরকার দলীয় সন্ত্রসীরা মহা সমারোহে প্রকাশে খুন খারাবি ও ধর্ষনের মহা উৎসবে ঝাপিয়ে পরেছে।

আজ সরকারের হস্তক্ষেপে বিচার বিভাগ সম্পূর্ন ধ্বংশ হয়ে গেছে, প্রতিহিংসা পরায়ন সরকার আজ দেশকে এক আতংক পুরিতে পরিনত করেছে। আমরা সরকার কে বলব অবিলম্বে এস সন্ত্রাসীদের লাগাম টানুন অন্যথায় ভবিষ্যত বাংলাদেশএর কঠিন জবাব দিবে।