বিকেলে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: বিশ্বকাপে টিকে থাকার লড়াইয়ে আজ বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। সেমিফাইনাল স্বপ্ন বাঁচিয়ে রাখতে প্রতিটি ম্যাচই এখন গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটারদের জন্য। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে পারফরম্যান্সের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চায় মাশরাফীর দল।
বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া দুই দলই নটিংহ্যামের ট্রেন্টব্রিজে অনুশীলন করেছে। বৃষ্টির শঙ্কা থাকলেও বুধবার অনুশীলনে তা বাধা হয়নি।
টুর্নামেন্টের ধারাবাহিক পারফরমার সাকিবকে ঠেকাতে বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। সাকিবের বাহাতি স্পিন সামলাতে নেটে অ্যাস্টন অ্যাগারকে ডেকে এনেছে অজি শিবির। এ মুহূর্তে ইংল্যান্ডে সফরে অস্ট্রেলিয়া এ দল।
১৩ এপ্রিল ২০১১। ৮ বছর দুমাসের কিছু বেশি সময়। এরপর বাংলাদেশ অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দ্বৈরথে ফল হয়নি। মাঝে দুদলের দেখা হবার উপলক্ষ্য হয়েছে দুবার। ২০১৫ বিশ্বকাপে বৃষ্টির দাপট টসটাও হতে দেয়নি আর দুবছর পর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ইংলিশ বৃষ্টি জিততে দেয়নি কোন দলকেই।

ট্রেন্টব্রিজে বিশ্বকাপে দুদলের ষষ্ঠ ম্যাচেও বৃষ্টির পূর্বাভাস। দুরন্ত বাংলাদেশ অবশ্য প্রকৃতির আনুকূল্য চায়না এবারও বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ ভেসে না যাক সেই প্রার্থনা সবার।
উইন্ডিজের বিপক্ষে ডোমিনেটিং জয়ের পর প্রথমবার অনুশীলনে টিম টাইগার্স। বড় ম্যাচ, বড় পরীক্ষা টনটনের সাথে নটিংহ্যামে মিলবে না অনেক কিছুই। তবে একাদশে যে অমিল হবে না তা বলে দেয়া যেতে পারে। বৃষ্টির বদ্যানতায় গেল দুই আইসিসি ইভেন্টে সুবিধা পাওয়া বাংলাদেশ নটিংহ্যামের পূর্বাভাস নিয়ে কি ভাবছে?
মাশরাফী বলেন, বৃষ্টি হলেও যেন আমাদের ভাগ্যের দিকে আসে। খেলা হলেও যেন আমাদের ভাগ্যের দিকে আসে। যেটাই হোক তা যেন আমাদের পক্ষেই আসে।
বুধবার সকালে অস্ট্রেলিয়ার অনুশীলনে ছিলেন না ডেভিড ওয়ার্নার-স্টিভেন স্মিথ। যারা ছিলেন সবার চেষ্টা স্পিনে নিজেদের তৈরি করার। নেটে ডেকে আনা হয়েছে বাহাতি স্পিনার অ্যাস্টন অ্যাগারকে।

ম্যাচ ফিট মার্কোস স্টয়নিস। অজিদের ভাবনা বাংলাদেশের স্পিন আর সাকিব আল হাসানকে। বল হাতে সাফল্যের সাথে ব্যাট হাতে একাই প্রায় চারশো রান করেছেন ওয়ানডের বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। মাশরাফীরও আরো একবার চান সাকিবের সুপারম্যান হয়ে ওঠা।
উইকেটরক্ষক অ্যালেক্স ক্যারিও স্বীকার করেছেন সাকিব আছেন দারুণ ফর্মে। বাংলাদেশের ধারাবাহিকতার প্রশংসা করেছেন তিনি।
অ্যালেক্স ক্যারি বলেন, ‘বাংলাদেশের স্পিন শক্তি দারুণ। তারা আমাদের চ্যালেঞ্জ জানাবে। সাকিব আল হাসান তার সেরা ফর্মে আছেন। বাংলাদেশও দল হিসেবে দারুণ ক্রিকেট খেলছে।’
ওয়ার্নার-স্মিথ ছাপিয়ে অজি পেস অ্যাটাক নিয়ে বেশি চিন্তিত বাংলাদেশ ম্যানেজমেন্ট। শীর্ষ পাচ বোলারের দুজন মিচেল স্টার্ক আর প্যাট কামিন্স যৌথ শিকার ২৪ উইকেট। অস্ট্রেলিয়া কতটা ভালো? এতটাই যে ট্রেন্ট ব্রিজে জয় পেতে বাংলাদেশকে প্রতিপক্ষের চেয়ে ভালো খেলতে হবে ৩০-৪০ ভাগ ভালো বেশি।

বিগ ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে পরিবর্তনের সম্ভ্বানা নেই বললেই চলে।
দুই দলের আগের ১৮ দেখায় ১৬টিতে জিতেছে অজিরা। বাংলাদেশের জয় মাত্র একটিতে। ২০০৫ সালে কার্ডিফে এসেছিলো ঐতিহাসিক সেই জয়। বিশ্বকাপে দুই দেখায় দুটিতেই হার বাংলাদেশের। ১৯৯৯ ও ২০০৭ বিশ্বকাপের বাইরে ২০১৫ বিশ্বকাপের ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছিলো।